300X70
শনিবার , ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

আ.লীগের প্রার্থী মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের যোগ্যতা

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
নভেম্বর ১৮, ২০২৩ ১:১১ পূর্বাহ্ণ

*বর্তমানে ও অতীতে দলের অন্তত দুটি সাংগঠনিক পদে থাপকতে হবে
* আগামী বুধ বা বৃহস্পতিবার মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে
* এবার মনোনয়ন পত্রের দাম রাখা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা


বিশেষ প্রতিনিধি : নির্বাচনে নবাগত ও হাইব্রিড নেতাদের ঠেকানোর জন্য এবার মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের যোগ্যতা হিসেবে জুড়ে দেওয়া হয়েছে ৩ শর্ত। মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহকারীদের দলে বর্তমান কোনো পদসহ অতীতের অন্তত আরো দুটি সাংগঠনিক পদ থাকতে হবে। যাতে করে অরাজনৈতিক ব্যবসায়ী, শিল্পপতি, সাবেক সামরিক-বেসামরিক আমলা, বিভিন্ন পেশাজীবী নেতা, প্রবাসী অর্থবিত্তের মালিক, ঠিকাদার এবং সমাজপতিরা হঠাৎ এসেই আওয়ামী লীগের মত প্রাচীন রাজনৈতিক দলের সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করতে না পারে। ফলে রাজনীতিকে সৎ, যোগ্য, অভিজ্ঞ ও ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন হবে বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নানা তদ্বিরে বর্তমানে অরাজনৈতিক অনেক ব্যক্তিবর্গ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের পদপদবি দখল করলেও তাদের অতীতের কোনো সাংগঠনিক পদপদবি নেই। এ কারণে তারা এবার নৌকার মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র ক্রয় করতে পারছেন না।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হবে আজ শুক্রবার থেকে। চলবে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত। এ জন্য ২৩ বঙ্গবন্ধু এভেনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে সেভাবে বিন্যস্ত করা হয়েছে। করা হয়েছে বিভাগীয় মনোনয়নপত্র বিতরণ বুথ। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সবার আগে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করে এই ফরম বিতরণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করবেন। নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠক থেকে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এর উদ্বোধন করবেন।
আজ শনিবার থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন-প্রত্যাশীরা ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা চার দিন (প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা) দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দলের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়। এতে বলা হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রশাসনিক বিভাগ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট বুথ থেকে দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগ এবং তৃতীয় তলায় রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র বিতরণ করা হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় সব বিভাগের মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হবে। আরো বলা হয়, ‘আওয়ামী লীগের মনোনয়ন-প্রত্যাশীদের কোনো ধরনের অতিরিক্ত লোকসমাগম ছাড়া প্রার্থী নিজে বা প্রার্থীর এক জন যোগ্য প্রতিনিধির মাধ্যমে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে হবে। আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় অবশ্যই প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে এবং ফটোকপির ওপর মোবাইল নম্বর ও বর্তমান সাংগঠনিক পরিচয়সহ তিনটি পদ সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করতে হবে। আগামী ২১ নভেম্বর বিকাল ৪টার মধ্যে মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।’
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী বুধ বা বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এই বোর্ডের প্রধান দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। আট বিভাগের প্রার্থী চূড়ান্ত করতে অন্তত চারটি বৈঠক হতে পারে। এসব বৈঠকে প্রতিটি আসন ধরে ধরে আগ্রহীদের বিষয়ে আলোচনা হবে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে প্রতিটি ফরমের দাম ছিল ৩০ হাজার টাকা। এবার ২০ হাজার টাকা বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে। গতবার ৪ হাজার ২৩টি ফরম বিক্রি হয়েছিল।
আওয়ামী লীগে ‘অনুপ্রবেশের’ বিষয়টি দেশময় আলোচিত-সমালোচিত ঘটনা। রাজাকার ও পাকবাহিনীর সহযোগিতায় গঠিত শান্তি কমিটির প্রধান বা গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন, এমন ব্যক্তি ও তাদের সন্তান-স্বজনদের কেউ কেউ নানা কৌশলে গত ১৫ বছরে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোতে ঢুকে পড়েছেন। হয়ে উঠেছেন একশ্রেণির বড় নেতাদের ঘনিষ্ঠ। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরই বলে আসছেন, ‘বিভিন্ন সংকটে দলের বড় নেতারা সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করলেও তৃণমূল সব সময়ই সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তৃণমূলই দলের প্রাণ, মূলশক্তি।’ সেই তৃণমূল আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের টার্গেট করেছেন স্বাধীনতা ও আওয়ামীবিরোধী চিন্তাধারার ব্যক্তিরা। তারা দলে ভিড়ে ত্যাগী নেতাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে আসছেন। তৃণমূল আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যারা নিবেদিতপ্রাণ বলে পরিচিত ছিলেন, দলের দুর্দিনে যারা ত্যাগীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন, আজ তারাই নিপতিত হয়েছেন চরম দুর্দিনে। জানা গেছে, এ বিষয়টি আমলে নিয়ে এবার মনোনয়নে নতুন শর্ত দিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলে বিরোধী মতাদর্শীদের ঢালাও অনুপ্রবেশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কয়েক বারই দলীয় নেতাদের সতর্ক করেছেন। তারপরও বিরোধী মতাদর্শীদের অনুপ্রবেশ ঠেকানো যায়নি। এ কারণে অনুপ্রবেশকারীদের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতারা এবার মনোনয়নবঞ্চিত হতে পারেন।
দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আগামী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নে বাদ পড়বেন অনেকেই। তালিকা চূড়ান্ত করতে চলছে শেষ মুহূর্তের যাচাই-বাছাই। গত মাসে আওয়ামী লীগের পার্লামেন্টারি পার্টির সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের অনেকে হয়তো দলীয় মনোনয়ন পাবেন না। শুধু আপনাদের মুখ দেখে মনোনয়ন দেব না। আগামী নির্বাচনে যাদের জয়ের সম্ভাবনা আছে, তাদেরই দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে। প্রতি ছয় মাস পরপর করা জরিপের ভিত্তিতে আমরা আগামী সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য প্রার্থী বাছাই করছি। তবে যারা দলীয় মনোনীত প্রার্থীদের বিরোধিতা করবে, তাদের রাজনীতি শেষ হয়ে যাবে।’

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে লণ্ডভণ্ড রাঙ্গুনিয়ার ঘরবাড়ি, ফসল ও ইটভাটার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

বিএনপিকে মোকাবেলা করার শক্তি আওয়ামী লীগের রয়েছে : কৃষিমন্ত্রী

কুমিল্লা ময়নামতিতে বাস চাপায় গর্ভের সন্তানসহ নারীর মৃত্যু, আহত-২

গাজীপুরে ইয়াবা ও গাজাসহ শীর্ষ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার

ঈদযাত্রা: প্রথম দিনেই ৫৫ মিনিট বিলম্বে কমলাপুর ছাড়ল ধূমকেতু

জাপান বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী দেশ : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বের আদর্শ : প্রধানমন্ত্রী

উত্তরপ্রদেশে মন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ৪ কৃষকসহ নিহত ৮

ঋণ গ্রহণকারীদের তালিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশের নির্দেশ হাইকোর্টের

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যু চার লাখ ছাড়াল

ব্রেকিং নিউজ :