300X70
বৃহস্পতিবার , ২৮ মার্চ ২০২৪ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

এফটিএ চুক্তি করতে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে সমীক্ষা প্রতিবেদন বিনিময়

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
মার্চ ২৮, ২০২৪ ৩:০৬ অপরাহ্ণ

এম.এস রানা : বাংলাদেশ ও চীন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে প্রাথমিকভাবে উভয় দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) স্বাক্ষরের লক্ষ্যে যৌথভাবে খসড়া সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদন বিনিময় করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সমীক্ষা প্রতিবেদন বিনিময় করা হয়।
এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন বলেন, চীন সরকার বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতা বাড়াতে চায়। ২০২৬ সালে স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বাংলাদেশ বের হওয়ার আগেই দুদেশের মধ্যে এফটিএ চুক্তি হবে।

আমদানি-রফতানিসহ বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে দুদেশের সুযোগ-সুবিধা ধরে রাখতেই এ চুক্তি সই হবে বলে জানান রাষ্ট্রদূত।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপণ কান্তি ঘোষ বলেন, বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ বর্তমান সরকারের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার একটি উল্লেখযোগ্য অর্জন। এটি বিশ্বে বাংলাদেশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি সৃষ্টি এবং বিনিয়োগ ও বাণিজ্যে নতুন সম্ভাবনা সৃষ্টির পাশাপাশি কিন্তু বেশ চ্যালেঞ্জও তৈরি করবে। এর মধ্যে ২০২৬ সালের পর স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশে পণ্য রফতানির সময় শুল্কমুক্ত কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার সুবিধা হারানো এবং মূল্য সংযোজন হার অন্যতম।

এতে বাংলাদেশের রফতানি পণ্যকে ওই সব দেশের বাজারে প্রবেশের সময় সাধারণভাবে আরোপিত শুল্কের সম্মুখীন হতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ফলে বাংলাদেশের রফতানি বাজার সংকোচনের সম্ভাবনা আছে।

সিনিয়র সচিব বলেন, বাংলাদেশের এলডিসি গ্র্যাজুয়েশন পরবর্তী সম্ভাব্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকারের ৮ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা অনুসারে বাংলাদেশের রফতানি বাজার সংরক্ষণ এবং সম্প্রসারণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এরই মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন দেশ ও ট্রেড ব্লকের সঙ্গে আঞ্চলিক বাণিজ্য চুক্তি সম্পাদনের উদ্যোগ নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চীন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনীতির দেশ এবং বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক অংশীদারও। চীন বাংলাদেশের বাণিজ্য সম্প্রসারণের জন্য একটি বাণিজ্য সম্ভাবনাময় এলাকা।

পণ্য ছাড়াও সেবা ও বিনিয়োগ খাতেও চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক উন্নয়নের সম্ভাবনা আছে জানিয়ে তপণ কান্তি ঘোষ বলেন, এ পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রাথমিকভাবে দুই দেশের মধ্যে এফটিএ স্বাক্ষরের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে ২০১৬ সালের ১৪-১৫ অক্টোবর চীনা প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফরকালে বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে এফটিএ স্বাক্ষরের বিষয়ে যৌথ সম্ভাব্যতা যাচাই সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করা হয়।
তপণ কান্তি ঘোষ বলেন, স্বাক্ষরিত এমওইউ বাস্তবায়নের পরবর্তী পদক্ষেপ হিসেবে উভয় দেশের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত দল (ওয়ার্কিং গ্রুপ) গঠন করা হয়।

এ পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের ২০-২১ জুন সময়ে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে বাংলাদেশ-চীন সম্ভাব্য মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষরের লক্ষ্যে যৌথ সম্ভাব্যতা সমীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত ওয়ার্কিং গ্রুপের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় সম্ভাব্যতা সমীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত দল খসড়া সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রণয়ন করে।

তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে করোনা অতিমারির কারণে এ বিষয়ে অগ্রগতি না হলেও উভয় দেশ যৌথ সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদনের নিজ নিজ অংশ প্রস্তুত করে। যার ফলশ্রুতিতে আজ (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ ও চীন যৌথভাবে খসড়া সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদন বিনিময় করে।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুতে  রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শোক

নারায়ণগঞ্জে মা-মেয়ে খুন, আটক ১

শ্রীলঙ্কাকে ২০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ পরিশোধে ১ বছর সময় দিল বাংলাদেশ

রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা আধুনিকায়ন ও যুগউপযোগী করার লক্ষ্যে রেলে ইলেক্ট্রিসিটি ব্যবহার হবে : রেলপথ মন্ত্রী

টঙ্গীতে ছাটাইয়ের প্রতিবাদে শ্রমিক বিক্ষোভ রাবার বুলেট নিক্ষেপ

সৌদি পৌঁছেছেন ৭৬ হাজার ৯৪০ হজযাত্রী, ১১ জনের মৃত্যু

৩ সমুদ্র বন্দরে ৮ নম্বর মহাবিপদ সংকেত

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন-ক্যাম্পাস এলআইএস প্রোগ্রামের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

তারেকসহ সাজাপ্রাপ্তদের ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ শক্তিশালী করা হবে: আইনমন্ত্রী

তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ৪ রানের জয় পেল টাইগাররা

ব্রেকিং নিউজ :