300X70
বুধবার , ৫ জুন ২০২৪ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের উন্নয়নে বিসিক অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে : বিসিক চেয়ারম্যান

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
জুন ৫, ২০২৪ ৪:২২ অপরাহ্ণ

‘বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত
বাঙলা প্রতিদিন নিউজ : বিসিকের চেয়ারম্যান (গ্রেড-১) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক বলেছেন, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের উন্নয়ন এবং বিকাশে বিসিক সবসময়ই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। পর্যটন শিল্পের বিকাশে এই শিল্পগুলোর গুরুত্ব অপরিসীম। পর্যটন শিল্পের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে আমরা নতুন নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারবো।

আজ বুধবার (৫ জুন) রাজধানীর আগারগাঁও পর্যটন ভবনের শৈলপ্রপাত মিলনায়ত নে “বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের গুরুত্ব” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সঞ্জয় কুমার ভৌমিক (গ্রেড-১) প্রথমেই গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। একইসাথে তিনি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে রূপকল্প ২০৪১, শিল্প সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে শিল্পের গুরুত্ব তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, সম্প্রতি আমাদের দেশের ভেতরেই পর্যটক সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বাড়ছে। এক্ষেত্রে বিসিকের অবদান ১১ শতাংশ। শিল্প ক্ষেত্রে ১০ লক্ষের অধিক কর্মসংস্থান বিসিকেই হয়েছে যার মধ্যে তিন লক্ষের অধিক নারী।

তিনি ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের গুরুত্ব তুলে ধরতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক হস্তশিল্প পণ্যকে ২০২৪ সালের বর্ষপণ্য ঘোষণা করার বিষয়ে আলোকপাত করেন।

তিনি বলেন, ট্যুরিজম বোর্ড ও বিসিক আলাদা নয়। আমাদের দেশের পণ্যের বাজার ব্যাপক। রাষ্ট্রীয় ও জাতীয় স্বার্থে বিসিক ও ট্যুরিজম বোর্ডকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।

সেমিনারে উপস্থিত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশটি আমাদের সবার, কাজেই দেশকে তুলে ধরা, দেশের পর্যটনকেন্দ্রগুলোর অপার সৌন্দর্য ও গুরুত্ব তুলে ধরা আমাদের সবার দায়িত্ব।

পরিশেষে, তিনি স্লোগান দিয়ে বলেন, ২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে মাননী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক সবাই এগিয়ে আসব এটাই হোক আজকের দিনে আমাদের দৃঢ় অঙ্গীকার।

বিশেষ অতিথি কামরুন নাহার সিদ্দীকা বলেন, “ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

আমাদের ঐতিহ্যবাহী হস্তশিল্প, টেক্সটাইল এবং অন্যান্য ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প পণ্যসমূহ বিদেশি পর্যটকদের আকর্ষণ করতে সক্ষম। সেমিনারের সভাপতি আবু তাহের মুহাম্মদ জাবের বলেন, বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, ঐতিহাসিক স্থান এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে পর্যটকদের সামনে তুলে ধরতে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

পর্যটন শিল্প এবং ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের প্রসারে সরকারের বিশেষ প্রণোদনা প্রয়োজন। জাবেদ আহমেদ তাঁর প্রবন্ধে উল্লেখ করেন, বাংলাদেশে পর্যটন শিল্পের বিকাশে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের ভূমিকা আরও সুসংহত করার জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা প্রণয়ন করা জরুরি।

তাছাড়া, পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় পণ্য ও সেবা উন্নয়নে উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন।”

সেমিনারে বিসিক ও ট্যুরিজম বোর্ডের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, শিল্প ও পর্যটন সংস্থা, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তা, শিক্ষাবিদ ও নীতি-নির্ধারকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারের শেষ পর্যায়ে একটি মুক্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়, যেখানে উপস্থিত অতিথিরা তাদের মতামত ও প্রস্তাবনা প্রদান করেন। তাঁরা পর্যটন শিল্প এবং ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের পারস্পরিক সম্পর্ক নিয়ে বিভিন্ন দিক আলোচনা করেন এবং এসকল শিল্পের উন্নয়নে একত্রে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পরিশেষে, সেমিনারের আয়োজকরা উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সহযোগিতায় বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক)।
সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সঞ্জয় কুমার ভৌমিক (গ্রেড-১), চেয়ারম্যান, বিসিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কামরুন নাহার সিদ্দীকা, অতিরিক্ত সচিব, শিল্প মন্ত্রণালয়। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন আবু তাহের মুহাম্মদ জাবের, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড।

সেমিনারে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. সন্তোষ কুমার দেব, চেয়ারম্যান, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যনেজমেন্ট বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাবেক অতিরিক্ত সচিব ও ট্যুরিজম বিশেষজ্ঞ জাবেদ আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আব্দুন নাসের খান, পরিচালক (বিপণন, নকশা ও কারুশিল্প), বিসিক।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিসিকের সম্মানিত পরিচালক (প্রশাসন) শ্যামলী নবী, বিসিকের বিভিন্ন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ, শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী প্রতিনিধিবৃন্দ, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জনাব শেখ আলী আশরাফ ফারুক, নকশাবিদ, বিসিক।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

বাংলাদেশ ও ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা সংক্রান্ত 3RD TRI SERVICES STAFF TALK (TSST) অনুষ্ঠিত

বঙ্গবন্ধুর ১০২তম জন্মবাষির্কী উদযাপন করল বেপজা

৬ মার্চ সর্বাত্মক হরতাল পালিত হয়

মুক্তিযুদ্ধ ও প্রগতির সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান তথ্যমন্ত্রীর

সাইবার যুদ্ধে স্বাধীনতাবিরোধীদের পরাজিত করার আহ্বান আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলকের

জিয়ার নির্দেশেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা: শাজাহান খান

জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় বেসরকারি খাতকে অন্তর্ভুক্ত করতে মতবিনিময় সভা

আজ রাত থেকেই কলড্রপের জন্য টকটাইম পাবেন গ্রামীণফোন গ্রাহকরা

বগুড়ায় একদিনে ১৩০০ পরিবারকে ত্রাণ দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

গোবিন্দগঞ্জ জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালন

ব্রেকিং নিউজ :