300X70
শনিবার , ২৭ মে ২০২৩ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আলোচিত খবর
  6. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  7. এছাড়াও
  8. কবি-সাহিত্য
  9. কৃষিজীব বৈচিত্র
  10. ক্যাম্পাস
  11. খবর
  12. খুলনা
  13. খেলা
  14. চট্টগ্রাম
  15. জাতীয়

খুলনা-৬ আসন : আ. লীগের মনোনয়ন চান তিন ডজনের বেশি নেতা

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
মে ২৭, ২০২৩ ১১:৩৫ অপরাহ্ণ

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগে জনপ্রিয়তায় শীর্ষে যারা

তারিক লিটু, কয়রা (খুলনা) : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা -৬ আসনে (কয়রা-পাইকগাছা) আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী তিন ডজনের বেশি কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের আওয়ামী লীগ নেতা। এ সকল নেতাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন তৃণমূলে জনপ্রিয়তায় বেশ এগিয়ে রয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও স্থানীয় জনগনের প্রত্যাশা জনপ্রিয় ব্যক্তিই দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৬ আসন থেকে মনোয়ন পেয়ে বিপুল ভোটে জয় লাভ করে পুনরায় আওয়ামী লীগ আসনটি জয় লাভ করবে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে ‘কয়রা সাংবাদিক ফোরাম’ খুলনা-৬ আসনে আওয়ামী লীগের যে সকল প্রার্থী জনপ্রিয়তায় এগিয়ে আছেন এই নিয়ে একটি অনলাইন ও মাঠ পর্যায়ে জরিপ করে।জরিপ ফলাফলে দেখা যায় স্থানীয় বাসিন্দারা বর্তমান সংসদ মো.আক্তারুজ্জামান বাবু, কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক সাইফুল্লাহ আল মামুন, জেলা শিল্প বিষয়ক সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাশেদ, জেলা স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ শেখ শহিদ উল্যাহ কে পর্যায়ক্রমে বেশি মানুষ পছন্দ করেছেন এবং তাদের উপরে এলাকার মানুষের আস্থা বেশি।

মনোয়ন প্রত্যাশী অন্য যে সকল নেতাদের নাম শোনা যাচ্ছে তার মধ্যে আছেন সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাড. সোহরাব আলী সানা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার প্রেম কুমার, জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধাক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুল আলম,পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা এমএলএ আব্দুল গফুরের সন্তান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি.এম মহসিন রেজা, কয়রা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম শফিকুল ইসলাম।আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিদের মধ্যে বর্তমান সংসদ সদস্য মো. আকতারুজ্জামান বাবু ও সাবেক সংসদ সদস্য সোহরাব আলী সানা বাদে বাকি সবাই নতুন মুখ।

কয়রা-পাইকগাছা এলাকার তরুণ সমাজ অনলাইন প্লাটফর্মের জরিপে জেলা শিল্প বিষয়ক সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাশেদকে পছন্দের শীর্ষে রেখেছেন।এলাকার শিক্ষিত তরুণ ও দরিদ্র জনগোষ্ঠী পছন্দের শীর্ষে রেখেছেন কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক সাইফুল আল মামুন কে।জনগনের আপদ বিপদে কাছে পাওয়া যায় বলে অধ্যাপক ডাঃ শেখ শহীদ উল্যাহর জনপ্রিয়তা প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে বেশি।

এ সকল সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে সকল শ্রেণি পেশার মানুষের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছেন বর্তমান সংসদ সংসদ মো.আক্তারুজ্জামান বাবু।নির্বাচনী এলাকায় ভেঁরিবাঁধের কাজ শুরু হওয়ায়,আপদে বিপদে সবার আগে কাছে পাওয়ায় তাঁর জনপ্রিয়তা সব থেকে বেশি।একাদশ সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে এলাকার আর্থ সামাজিক অবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন করার চেষ্টা করেন বর্তমান সংসদ সদস্য।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে উপজেলার সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিরবে গণসংযোগ, উঠান বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন। এলাকার পাড়ায়-পাড়ায়, মহল্লায়-মহল্লায় ও হাট-বাজারের চা আড্ডা আলাপনে ভোটার, জনগণ ও নেতা-কর্মীদের মধ্যে সর্বত্রই চলছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিয়ে আলোচনার ঝড়। কে পাচ্ছেন,দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আ’লীগ দলীয় প্রার্থী । অবসরে, খোস-গল্পে ও চা আড্ডায় হিসাব কষছেন নেতা-কর্মী ও ভোটাররা। বিভিন্ন প্রার্থীর ব্যক্তিগত জীবনী, পারিবারিক ইতিহাস এবং রাজনৈতিক ভাবে জনপ্রিয়তাকে ঘিরে মিলাচ্ছে মনোনয়নের হিসাব।

বর্তমান সরকার আমলে এমপি মো.আক্তারুজ্জামান বাবু এলাকার সার্বিক উন্নয়নের ধারা সূচনা করেছেন।
ফলে দৃশ্যমান বাস্তবতায় চোখে পড়ে বদলে গেছে কয়রা-পাইকগাছা উপজেলার জনপদ। বর্তমান সরকার আমলে উন্নয়ন প্রবাহ কয়রা-পাইকগাছা উপজেলাবাসীর কাছে আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তাকে আরো সুসংহত করেছে। কয়রা উপজেলার মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি টেকসই ভেড়িবাঁধের জন্য পনের শত কোটি টাকার কাজ চলমান।

খুলনা শহর থেকে পাইকগাছা ও কয়রায় পৌঁছানোর প্রধান সড়ক পথ আঠার মাইল থেকে কয়রা উপজেলা পর্যন্ত রাস্তাটি বাক সরলীকরণ ও প্রশস্ত করনের জন্য ৩৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে এবং তার মধ্যে প্রায় ৭০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে৷প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল হতে কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলায় পনের শত অসুস্থ দুস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা সহায়তার চেক প্রদান করা হয়েছে।ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় থেকে কয়রা পাইকগাছার মানুষের জন্য পনের হাজার পানির ট্যাংক বরাদ্ধ করা হয়েছে৷ এসকল উন্নয়ন কাজ বিগত সংসদ সদস্যদের থেকে সবোর্চ্চ।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের কয়েক জন নেতাকর্মী জানান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক ও বিএল কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সাইফুল্লাহ্ আল মামুন আওয়ামী লীগের জন্য নিবেদিত প্রাণ।তাঁর বাবা কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এ আসনে তার বিকল্প নেই।

তিনি এমপি নির্বাচিত হলে কোনো দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতিও নিয়োগ বাণিজ্যের করবেন না।উপজেলা আওয়ামী লীগ কে কার্যকারী শক্তিশালী করার জন্য তিনি ভূমিকা নিবেন।সাইফুল্লাহ্ আল মামুন প্রকাশ্য এমপি প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা না দিলেও তার কর্মী সমর্থক ও তিনি নিরবে কয়রা ও পাইকগাছার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক জনসংযোগ করে যাচ্ছেন।

খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ শেখ শহীদ উল্যাহ ছাত্র জীবনে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িক্ত পালন করেছেন।এলাকায় সবাই তাকে ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে জানে।মানুষের আপদ বিপদে ছুটে যান তিনি।এলাকার মানুষ মনে করে তিনি নমিনেশন পেলে এলাকায় ভাল ভাবে কাজ হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার প্রেম কুমার ছাত্র জীবনে চুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।শিক্ষিত তরুণ হিসেবে এলাকায় তার গ্রহণযোগ্যতা অনেক।

সংসদ সদস্য মো.আক্তারুজ্জামান বাবু ছাত্র রাজনীতির জীবন থেকে কয়রা ও পাইকগাছা মানুষের জন্য কাজ করে আসছে।একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে দুই উপজেলার সমস্যা সমাধানে এযাবত কালের মধ্যে সবোর্চ্চ কাজ করেছেন। তিনি দিন রাতে যে কোন সময় মানুষের বিপদে ছুটে যান। স্থায়ী টেকসই ভেঁরিবাঁধ প্রকল্প সহ এলাকায় সহস্র উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ সফল ভাবে হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসী তাঁকে আবারও সংসদ সদস্য হিসেবে দেখতে চায়।

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

আপনার জন্য নির্বাচিত

শহিদ বীর-উত্তম লেঃ আনোয়ার গার্লস কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

গোয়েন্দা তথ্য বিশ্লেষণ করে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেবে ডিএমপি

চবিতে ‘রাজ গোখরা’ সাপ উদ্ধার

রোবট এখন কোন বিলাসী বিষয়বস্তু নয়, রোবট আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় হয়ে উঠেছে : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

তামাক কোম্পানির করোনা টিকা নাকচ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ভোট ইস্যু : ইত্তেহাদুল মুসলেমিন ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাল্টাপাল্টি চ্যালেঞ্জ

ইরানের একটি কারপার্কে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে অনেক শিক্ষার্থী, পুলিশের গুলি

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ের বুকে মুখিকচু চাষে ব্যাপক সাড়া

ট্রানজিট ফ্লাইট শুরু হচ্ছে বুধবার

৭ থেকে ২৮ অক্টোবর ইলিশ ধরা-বিক্রি নিষিদ্ধ

ব্রেকিং নিউজ :