300X70
বৃহস্পতিবার , ২৭ অক্টোবর ২০২২ | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

জবিতে ফুটবল টুর্নামেন্টের দাবি শিক্ষার্থীদের

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
অক্টোবর ২৭, ২০২২ ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

জবি প্রতিনিধি : নানান ধরনের অজুহাত দেখিয়ে একের পর এক তারিখ দিয়েও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে হচ্ছে না ফুটবল টুর্নামেন্ট। করোনাকালীন সময়ের পর এখন পর্যন্ত আয়োজন করতে পারে নি কোন টুর্নামেন্ট।

টুর্নামেন্টে আয়োজনে সব থেকে বড় বাধা ছিল কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ। এর আগে ধুপখোলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নামে একটি মাঠ ব্যাবহার করতো,কিন্তু করোনাকালীন সময়ে সেটিও দখলে নিয়ে নেয় সিটি করপোরেশন। এরপর নতুন ভিসি নিযুক্ত হবার পরে তিনি কেরানীগঞ্জে নতুন ক্যাম্পাসের জন্য পাওয়া জমিতে দ্রুতই মাঠ নির্মান সহ সব ধরনের খেলাধুলার আয়োজন করা হবে বলে ঘোষণা দেন। কিন্তু প্রায় এক বছর হয়ে গেলেও একটা নড়বড়ে মাঠ নির্মান করে একের পর এক তারিখ দিয়েও আয়োজিত হয় নি কোন ফুটবল টুর্নামেন্ট।

গেল আগস্ট মাসের ১৫ তারিখ থেকে টুর্নামেন্ট শুরু হবে এমন ঘোষণা দিয়ে সব ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীরা অনুশীলন শুরু করে। কিন্তু তখনো মাঠ সম্পূর্ণ রুপে প্রস্তুত না এমন অজুহাত দিয়ে সেপ্টেম্বর ৩ তারিখ থেকে খেলা শুরু ফিকচার প্রকাশ করা হয়। সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু কাপের আন্তবিশ্ববিদ্যালয়ের খেলা শুরু হলে আবার এই অজুহাতে খেলা ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়। ২৯ সেপ্টেম্বর বলা হয় পূজার পরে শুরু হবে টুর্নামেন্টে। পূজার বন্ধের ১৬ দিন পেরিয়ে যাবার পরেও এখনক আয়োজন হচ্ছে না সেই ফুটবল টুর্নামেন্ট।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক গৌতম কুমার দাশের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একটা টুর্নামেন্ট চালানোর জন্য যেমন পরিস্থিতি দরকার তা সম্পূর্ণ হয় নি। মাঠে শিক্ষার্থীদের জন্য একটা ঘর করে দেওয়া হলেও এখন পর্যন্ত সেখানে বিশুদ্ধ খাবার পানি এবং বিদ্যুৎ এর ব্যাবস্থা করা হয় নি। এছাড়াও একটি টুর্নামেন্ট চালানোর জন্য প্রতিটি ডিপার্টমেন্টে বেশ কিছু খরচ থাকে। এই বাজেট দেওয়ার জন্য আমি ট্রেজারার স্যারের কাছে আবেদন জানালেও এখনো সেই বাজেট পাশ হয়নি।

ফুটবল টুর্নামেন্টের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোঃ জাকির হোসের সাথে কথা বললেও তিনিও একই কথা বলেন, মাঠে পানি বিদ্যুৎ এবং খেলার জন্য ডিপার্টমেন্টে গুলোতে এখনো বাজেট না পৌছায় আমি খেলার ঘোষণা দিতে পাচ্ছি না।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান প্রকৌশলী হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী সাথে বিদ্যুৎ এবং পানি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিদ্যুৎ এর জন্য কাগজপত্র প্রায় সব সম্পূর্ণ এবং ইতোমধ্যে পল্লী বিদ্যুৎ এর লোকজন মাঠ ভিজিট করে গেছেন শীঘ্রই আমরা বিদ্যুৎ পাব এবং বিদ্যুৎ পেলেই বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যাবস্থা করা সম্ভব হবে। কিন্তু কবে নাগাদ বিদ্যুৎ পানির ব্যাবস্থা হবে সেই উত্তর নেই তার কাছে।

ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমেদের কাছে ডিপার্টমেন্টের বাজেট সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ধরনের সুযোগ আগে দেওয়া হয় নাই। তবে এবার চেষ্টা করতেছি একটা বাজেট দেওয়ার জন্য। আগামীকাল এর মধ্যে একটা সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে।

এদিকে প্রশাসনের ফুটবল টুর্নামেন্ট নিয়ে এমন টাল বাহানায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি দ্রুত সব সমস্যার সমাধান করে টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হোক।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত
ব্রেকিং নিউজ :