300X70
শুক্রবার , ৩ মে ২০২৪ | ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

ঢাকা উত্তরে ‘ঠাণ্ডা অঞ্চল’ বানানোর উদ্যোগ নিবে ডিএনসিসি

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
মে ৩, ২০২৪ ৭:০৩ অপরাহ্ণ

বাঙলা প্রতিদিন প্রতিবেদক : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে রয়েছে ১১টি বস্তি। এসব বস্তিতে বসবাসকারীদের প্রচণ্ড তাপপ্রবাহ বা গরমে স্বস্তি দিতে ৯টি ‘কুলিং জোন’ বা ‘ঠাণ্ডা অঞ্চল’ বানানো হবে। যেখানে থাকবে শেড ও ফ্যান। কৃত্রিম বৃষ্টি ঝরানোর ব্যবস্থাও করা হবে ‘ঠাণ্ডা অঞ্চল’ ঘিরে। সেভাবে ডিজাইন করা হবে।

এমন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

আজ শুক্রবার (৩ মে) সকালে রাজধানীর উত্তরায় রিকশাচালকদের মধ্যে ছাতা, পানির বোতল ও স্যালাইন বিতরণ অনুষ্ঠানে বস্তিবাসীদের গরমে স্বস্তি দিতে এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

উত্তর সিটি মেয়র বলেছেন, “আমার সমাজ উন্নয়ন বিভাগকে বলেছি, নয়টি জায়গায় বস্তিবাসীদের জন্য কুলিং জোন করে দিতে।

কুলিং জোনে শেড থাকবে, ফ্যান থাকবে। এখানে যদি আমরা মিস্টের বন্দোবস্ত করতে পারি, সেটিও আমরা করে ফেলতে পারি। সেই ডিজাইন রেডি করছি আমরা।”

মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, “আমাদের ১১টি বস্তি আছে। চিফ হিট অফিসার আমাকে বলেছেন, এই মুহূর্তে বস্তিবাসীদের আরাম দেওয়া দরকার। বস্তিবাসীরা কিন্তু খেটে খাওয়া মানুষ।

তারা যদি দিনে-রাতে বিশ্রাম না নিতে পারে তাহলে কর্মক্ষমতা অনেক হারিয়ে ফেলবে। তাদের উপার্জনে বিঘ্ন ঘটবে।”

তীব্র তাপপ্রবাহে নগরবাসীকে স্বস্তি দিতে করপোরেশনের নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন মেয়র আতিক। তিনি বলেন, “আমরা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় মিস্ট (কৃত্রিম বৃষ্টি) ছড়াচ্ছি।

এছাড়া প্রতিটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলরদের তিনটি করে রিকশা-ভ্যান দেওয়া হয়েছে; বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করছি আমরা। আমাদের ১০টি ব্রাউজার আছে, এই ব্রাউজার দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় আমরা পানি ছিটাচ্ছি।”

মেয়র বলেন, “ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২১টি পার্কে মিস্টার দিয়ে একটি কর্নার করে দিচ্ছি, যাতে সবাই এসে বিশ্রাম নিতে পারে।”

নগরীর পার্কগুলোতে আর্টিফিশিয়াল মিস্ট তৈরির পরিকল্পনার কথা জানিয়ে আতিক বলেন, “ইতোমধ্যে মেকানিক্যাল ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে কথা হয়েছে।”

বিত্তবানদের বাসার সামনে কল স্থাপনের অনুরোধ জানিয়ে মেয়র আতিক বলেন, “কল লাগিয়ে দিলে সবাই কিন্তু পানি খেতে পারে।”

একইসঙ্গে দোকান মালিক সমিতি ও ব্যবসায়ী সমিতির নেতাদের ড্রিংকিং ওয়াটার সরবরাহ করারও অনুরোধ জানান।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

বকেয়া বেতনের দাবিতে আদমজী ইপিজেডে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় কিশোরসহ দুইজন নিহত

তাড়াশের সাবেক এমপি গাজী আমজাদ হোসেন মিলন মারা গেছে

সংলাপের বিএনপির আলোচনার আবদার অর্থহীন : কাদের

পাবলিক প্লেস এবং পাবলিক পরিবহন শতভাগ ধূমপানমুক্ত র‌্যালি অনুষ্ঠিত

‘শ্রমিকদের নিরাপদ রাখতে কলকারখানা পরিদর্শন ও শ্রম অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের নিষ্ঠার সাথে কাজ হবে’

ভাসানচরে তৃতীয় দফায় ১৭৭৬ জন রহিঙ্গা এসে পৌঁছেছে

ভালুকায় কোভিট ১৯ টিকা নিতে আসা লোকদের সার্বিক সেবা দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের

সিয়েরা লিওনে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ৯১

সাউথইস্ট ব্যাংককে অ্যাওয়ার্ড প্রদান ন্যাশনাল এক্সচেঞ্জ কোম্পানির

ব্রেকিং নিউজ :