300X70
শনিবার , ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

ঢাকা ওয়াটারকালার একাডেমীর দিনব্যাপী জলরং কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২৪ ১:২৫ পূর্বাহ্ণ

বাঙলা প্রতিদিন ডেস্ক : শিল্পী শাহানুর মামুনের প্রতিষ্ঠিত ঢাকা ওয়াটারকালার একাডেমীর আয়োজনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালায় দিনব্যাপী জলরং কর্মলাশা অনুষ্ঠিত হয়। নেপালি শিল্পী এনবি গুরুং এবং শাহানুর মামুন যৌথভাবে কর্মশালা পরিচালনা করেন।

প্রতিশ্রুতিশীল ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান ১১০ জন শিল্পী
এই কর্মশালায় অংশগ্রহন করেন। তরুন শিল্পীদের উৎসাহ দিতে চারজন শিল্পীকে পুরস্কৃত করা হয়। পুরস্কৃত শিল্পীরা হলেন জান্নাতুল ফেরদৌস, জাহিদ খান, আলাউদ্দিন আজাদ ও সামিউল আলম।

‘ঢাকা ওয়াটারকালার একাডেমী প্রতিষ্ঠিত হয় তরুনদের মধ্যে জলরং’কে জনপ্রিয়
করতে। বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ এবং জলরঙে বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দয
সবচেয়ে সুন্দর করে উপস্থাপিত হয়। জলরং বেশ কস্টসাধ্য এবং নিয়মিত চর্চা
করতে হয়। বাংলাদেশের তরুন শিল্পীদের দেশের মানুষের কাছে তুলে ধরতে আমরা নিয়মিত কাজ করছি।’ বলেন ঢাকা ওয়াটার কালার একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক শাহানুর মামুন।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা নিয়মিত দেশী-বিদেশী শিল্পী ও প্রশিক্ষকের মাধ্যমে
কর্মশালা, আর্ট ক্যাম্প ও প্রদর্শনীর আয়োজন করে থাকি। নেপাল থেকে আগত
বিখ্যাত জলরং শিল্পী ও প্রশিক্ষক এনবি গুরুং এর কাছ থেকে আমাদের তরুন
শিল্পীরা অনেক কিছু শিখতে পারবে আশা করি।’

’এই তরুণ শিল্পীরা পরিশ্রমী ও আন্তরিক। তারা আরও ভাল করবে এবং আমি চাই
তারা দেশে এবং বিদেশে তাদের শৈল্পিক উৎকর্ষ দেখাবে,’ বলেন এনবি গুরুং।

’আমরা তরুণ অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহিত করার চেষ্টা করি সবসময়। তাদের
শিল্পকর্মের উপর ভিত্তি করে চারজন শিল্পীকে সম্মানিত করছি।
ছাত্র-ছাত্রীদের পাশাপাশি সমসাময়িক শিল্পীরা এই কর্মশালায় অংশ নিচ্ছেন
এবং আমরা এই কর্মশালায় করা চিত্রকর্ম নিয়ে খুব শীঘ্রই একটি দলগত
প্রদর্শনীর আয়োজন করার পরিকল্পনা করছি,” বলেন ঢাকা ওয়াটার কালার
একাডেমির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক জান্নাতুন নাহার রিন্টি।

পুরষ্কার ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত ভাস্কর-চিত্রশিল্পী হামিদুজ্জামান খান, ভাস্কর আইভি জামান, নেপালি শিল্পী এনবি গুরুং, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অধ্যাপক জামাল উদ্দিন আহমেদ, ঢাবির শিক্ষক আনিসুজ্জামান আনিস ও কামালউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শিল্পী শাহানুর মামুন।

অংশগ্রহণকারী ও পুরস্কার প্রাপ্তরা অতিথিদের কাছ থেকে সনদ ও সম্মাননা
স্মারক গ্রহণ করেন।

সর্বশেষ - খবর

ব্রেকিং নিউজ :