300X70
বৃহস্পতিবার , ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

তামাকমুক্ত দেশ বাস্তবায়ন ঘোষণার ৮ম বার্ষিকী উদযাপন

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৪ ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

দেশে বছরে ১ লাখ ৬১ হাজার মানুষের মৃত্যুর কারণ তামাক
বাঙলা প্রতিদিন ডেস্ক : ধূমপানসহ তামাক ব্যবহারের কারণে প্রতিবছর দেশে প্রায় ১ লাখ ৬১ হাজার মানুষের অকাল মৃত্যু হচ্ছে।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘২০৪০ সালের মধ্যে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ঘোষণা উদযাপন’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ।

এক জরিপের তথ্য তুলে ধরে বক্তারা বলেন, আমাদের দেশে তিন কোটি ৭৮ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ তামাক ব্যবহার করেন। কর্মক্ষেত্রসহ পাবলিক প্লেস ও গণপরিবহনে পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হন, তিন কোটি ৮৪ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ। আর তামাকজনিত বিভিন্ন রোগে প্রতিবছর প্রায় এক লাখ ৬১ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।

ফলে, এই মৃত্যুর মিছিল কমাতে দ্রুত বিদ্যমান তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করা প্রয়োজন। কারণ, বিদ্যমান আইনে কিছু জায়গায় দুর্বলতা রয়ে গেছে।
এ সময় বিভিন্ন তামাকবিরোধী সংগঠন এবং ১৫ হাজারের বেশি ব্যক্তি ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০০৫ (২০১৩ সালে সংশোধিত) যুগোপযোগী করে বৈশ্বিক মানদণ্ডে উন্নীত করতে ছয়টি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করার সুপারিশ জানায়।

সেগুলো হলো- আইনের ধারা ৪ ও ৭ বিলুপ্ত করা অর্থাৎ সব পাবলিক প্লেস ও গণপরিবহনে ধূমপানের জন্য নির্ধারিত স্থান নিষিদ্ধ করা।
>> তামাকজাত দ্রব্যের বিক্রয়স্থলে তামাকজাত পণ্য প্রদর্শন নিষিদ্ধ করা।
>> তামাক কোম্পানির যে কোনো ধরনের সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কর্মসূচি পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা।
>> তামাকজাত দ্রব্যের প্যাকেট বা কৌটায় সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবার্তার আকার ৫০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৯০ শতাংশ করা।
>> বিড়ি-সিগারেটের খুচরা শলাকা, মোড়কবিহীন এবং খোলা ধোঁয়াবিহীন তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি নিষিদ্ধ করা।
>> ই-সিগারেটসহ সব ইমার্জিং টোব্যাকো প্রোডক্টিস পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি, আজকের এইদিনে দক্ষিণ এশীয় স্পিকার্স সামিটের সমাপনী ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে সম্পূর্ণভাবে তামাকের ব্যবহার নির্মূল করার ঘোষণা দেন। একই সঙ্গে এই লক্ষ্য অর্জনে তিনটি পদক্ষেপের কথা জানান।

সেগুলো হলো- স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ ব্যবহার করে একটি তহবিল গঠন করা, তামাকের ওপর বর্তমান শুল্ক-কাঠামো সহজ করে একটি শক্তিশালী তামাক শুল্কনীতি গ্রহণ করা এবং তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নের জন্য সব ধরনের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা।

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক খন্দকার আব্দুল আউয়াল রিজভী প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, আমরা সবাই জানি তামাক রাষ্ট্রের জন্য ভালো নয়। যে তামাক বিক্রি করে তার তো লাভ হয়। আর আমরা যারা সেবন করি, তারা নিজের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করি। এটা আমাদের ইকোনমির জন্য খারাপ। পরিবেশের জন্য খারাপ।

এক কথায় এটা সবকিছুর জন্য খারাপ। আমি নিজেই একসময় ধূমপান করতাম। এখন আমার হার্টে সমস্যা হয়ে গেছে। বর্তমানে অনেক যুবকের হার্টের রোগ হয়। এটা হওয়ার কারণ হলো, ধূমপানসহ অন্যান্য জিনিস সেবন করা। প্রধানমন্ত্রী তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন প্রণয়নের যে ব্যবস্থা করেছেন, সেজন্য আমরা তাকে ধন্যবাদ জানাই।

সংবাদ সম্মেলনের মূল প্রবন্ধ বলা হয়, ২০১৬ সালে বিশ্বের প্রথম রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ থেকে তামাকের ব্যববহার সম্পূর্ণভাবে নির্মূল করার ঘোষণা দেন। একই সাথে এই লক্ষ্য অর্জনে তিনটি দিক-নির্দেশনা দেন। সেগুলো হলো- স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ ব্যবহার করে একটি তহবিল গঠন করা; তামাকের উপর বর্তমান শুল্ক-কাঠামো সহজ করে একটি শক্তিশালী তামাক শুল্ক-নীতি গ্রহণ করা এবং তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নের জন্য সব ধরণের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এমন ঘোষণা দেওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ক্যান্সার সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মহিউদ্দিন ফারুক। তিনি বলেন, তামাক ব্যবহারের কারণে অল্প বয়সে আমরা হৃদরোগ, স্ট্রোকসহ বিভিন্ন অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছি। আবার এসব রোগের চিকিৎসা করতে গিয়ে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। যা জিডিপিতে প্রভাব ফেলছে। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী তামাকমুক্ত বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আইন সংশোধনসহ আমাদের একযোগে কাজ করতে হবে।

প্রধান অতিথির ব্ক্তব্যে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ-এর সভাপতি অধ্যাপক খন্দকার আব্দুল আওয়াল রিজভী বলেন, ২০৪০ সালের মধ্যে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনের ঘোষণা দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। তার ঘোষণা বাস্তবায়নে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। কারণ তামাক ব্যবহারের ফলে আমরা বিভিন্ন অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত হচ্ছি। একই সাথে অকাল মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছি। তাই তামাকের এই ক্ষতি থেকে বাঁচতে আমাদের এখনই তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের রোগতত্ত্ব ও গবেষণা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সোহেল রেজা চৌধুরী বলেন, আজকের এই দিনে দক্ষিণ এশীয় স্পীকার্স সামিটের সমাপনী ভাষণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে সম্পূর্ণভাবে তামাকের ব্যবহার নির্মূল করার ঘোষণা দেন। একই সাথে এই লক্ষ্য অর্জনে তিনটি পদক্ষেপের কথা জানান। কিন্তু এখনো সেগুলো যথাযথ বাস্তবায়ন হয়নি। ফলে তামাক নিয়ন্ত্রণে আমরা আশানুরূপ ফল পাচ্ছি না। তাই অবিলম্বে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন।

আজকের সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডস (সিটিএফকে)-বাংলাদেশের লিড পলিসি এডভাইজার মো. মুস্তাফিজুর রহমান, ভাইটাল স্ট্রাটেজিজ-এর হেড অব প্রোগ্রাম (টোব্যাকো কন্ট্রোল) মো. শফিকুল ইসলাম, সিটিএফকের অ্যাডভোকেসি ম্যানেজার মো. আতাউর রহমান, আব্দুস সালাম মিয়া, বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

মিরপুরের পল্লবীতে নবনির্মিত ফায়ার স্টেশনের উদ্বোধন করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

দেশের ছয় বিভাগে ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে

”স্বাস্থ্যখাতে ৩ বছরে ৭০ হাজার জনবল নিয়োগ দেয়া হয়েছে ”

বামতীর রক্ষাবাঁধ নির্মাণে ব্রহ্মপুত্র ভাঙ্গন থেকে রক্ষা পাবে মুক্তিযুদ্ধের মুক্তাঞ্চল রৌমারী

ইসলামী ব্যাংকের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত

উপমহাদেশীয় বিদেশি ভাষার সিনেমা আমদানির জন্য তথ্যমন্ত্রীকে চিঠি

নিউমার্কেটে জাল সনদ ও জাল সনদ তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ১ জন গ্রেফতার

অধ্যাপক তাহের হত্যা: দুইজনের মৃত্যুদণ্ড ও দুইজনের যাবজ্জীবন বহাল

আ.লীগ সতর্ক পাহারায় আছে, প্রয়োজনে পাহারা জোরদার করা হবে : ওবায়দুল কাদের

মঙ্গলবার থেকে বেনাপোল বন্দরে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

ব্রেকিং নিউজ :