300X70
রবিবার , ১৫ অক্টোবর ২০২৩ | ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

ভোট আসলে যারা বড় বড় কথা বলে তাদের থেকে সতর্ক থাকুন : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
অক্টোবর ১৫, ২০২৩ ১:০৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘ভোট আসলে অনেকেই আসবে, বড় বড় কথা বলবে। তাদের থেকে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ, আমরা যে সড়কের উন্নয়ন করেছি তার গর্ত ভরাট করার সক্ষমতাও তাদের নেই।’

হামাস-ইসরাইল যুদ্ধ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘ফিলিস্তিনে যেভাবে নিরীহ মানুষদের ইসরাইলিরা হত্যা করছে, সেই হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করার আহ্বান জানাই। ফিলিস্তিনের নিরীহ বাসিন্দাদের জন্য আমি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি।’

আজ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পারুয়া ইউনিয়ন পরিষদের কমিউনিটি সেন্টারে ইউনিয়নের উপকারভোগী সমাবেশে ভার্চুয়াল উপায়ে ঢাকা থেকে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। পারুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একতেহার হোসেন সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন।

সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, ‘শুধু ভোটের সময় যারা আসবে, তাদের জিজ্ঞেস করবেন, আপনাদের করোনা, বন্যা কিংবা দেশের দুর্যোগ-দুর্বিপাকে দেখা যায়নি কেনো? তাদের বলবেন, আসছেন ভালো কথা, বসে চা খেয়ে চলে যান।’

হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, বর্তমান সরকার যে নানারকম ভাতা দিচ্ছে, এগুলো আগে কখনো ছিল না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে চালু করেছিল। এরপর ২০০৮ সালে ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুকন্যা ভাতার পরিমাণ এবং আকার দুটোই আরো বৃদ্ধি করেছেন। বর্তমানে প্রতিটি ইউনিয়নে ২ থেকে ৪ হাজার মানুষ নানাধরনের উপকারভোগী আছে।

হাছান মাহ্‌মুদ আরো বলেন, ‘সরকার নিয়মিত এই সহায়তা করে যাচ্ছে। যদি আওয়ামী লীগ সরকার আবার ক্ষমতায় না আসে তাহলে এই ভাতাগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। ১৪-১৫ বছর আগে যে ছেলেটা বিদেশ গিয়েছিল, সে দেশে আসবে তার গ্রাম চিনতে পারবে না। এভাবেই দেশ উন্নয়নে পালটে গেছে। এই পরিবর্তন আওয়ামী লীগ সরকার করেছে, জননেত্রী শেখ হাসিনা করেছেন।’

নিজ নির্বাচনি এলাকার বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘আমাকে এমপি নির্বাচিত করার পর, আমি দলীয় এমপি থাকিনি, আমি সব মানুষের এমপি হওয়ার চেষ্টা করেছি। সবার জন্য আমার দরজা খোলা রেখেছি। রাখালের মতো করেই গত ১৪-১৫ বছর আপনাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছি।’

চট্টগ্রাম ৭ আসনের সংসদ সদস্য হাছান বলেন, ‘যারাই আমার কাছে আসে, তাদের আমি সাহায্য করেছি। আমার বিরুদ্ধে মাইকিং করেছে এমন অনেকেরও চাকরির ব্যবস্থা করেছি। গণমানুষের রাজনীতি করি বলেই সকাল-সন্ধ্যা কিংবা গভীর রাতেও মানুষ আমার কাছে আসেন। রাঙ্গুনিয়া সম্প্রীতির উদাহরণ, এখানে সব সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য আমি দোয়া কামনা করছি, দুর্গাপূজাও যেনো সুন্দরভাবে হয়।’

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ইমাম হোসেন ইমনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বদিউল খায়ের লিটন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুচ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইলিয়াস তালুকদার, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবুল হাশেম, সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল্লাহ, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কুতুব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আরফাত নিজাম প্রমুখ।

সর্বশেষ - খবর