300X70
শনিবার , ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে তুরাগতীরে জুমার নামাজ আদায়

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৪ ১২:০১ পূর্বাহ্ণ

বি এ রায়হান : ঈমান, আমল ও আখলাক, দাওয়াত ও তাবলীগ সম্পর্কে তাবলীগী বুর্জুগ, ইসলামী চিন্তাবিদ, আলেম ও পাকিস্থানের মাওলানা আহমদ বাটলা সাহেব এর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুক্রবার বাদ ফজরে শুরু হয়েছে আলমি সূরা তত্বাবধানে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব।

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে তাবলীগ জামাতের বার্ষিক মহাসম্মেলন শুক্রবার বিশ্ব ইজতেমার প্রথম দিন বৃহত্তম জুমার জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

ইজতেমায় অংশগ্রহণকারী লাখ লাখ মুসল্লি ছাড়াও রাজধানীসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার হাজার হাজার মানুষ রেলপথ, সড়ক পথ, নৌপথসহ বিভিন্ন যানবাহন এবং অনেকে পায়ে হেঁটে শরীক হন এই বৃহত্তম জুমার জামাতে।

দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে শুরু হওয়া জুমার জামাতে ইমামতি করেন বাংলাদেশের তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বি, কাকরাইল মসজিদের খতিব মাওলানা যোবায়ের সাহেব। জুমা নামাজের পর বয়ান করেন জর্ডানের জিম্মদার শেখ ওমর খতিব সাহেব, তরজমা করেছেন মাওলানা জাকির সাহেব।

বাদ আছর বয়ান করেন মাওলানা মোহাম্মদ যোবায়ের আহমদ। বাদ মাগরিব বয়ান করেন আহমদ লাট ও তর্জমা করেন মাওলানা ওমর ফারুক ।

বিশ্বের অর্ধশতাধিক দেশের প্রায় দুই সহস্রাধিক প্রতিনিধিসহ লাখো মুসল্লিরা অংশগ্রহণে অসীম, অনন্ত ও প্রেমময় আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে ইবাদত বন্দেগি আর কোরআন হাদিসের আলোচনায় বিশ্ব ইজতেমার বিশাল প্যান্ডেলে এখন পবিত্র ধর্মীয় পরিবেশ বিরাজ করছে।

আগামী রবিবার দুপুরের আগে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এ ধর্মীয় মহা-সমাবেশের প্রথম পর্ব শেষ হবে।

জুমায় ভিআইপিদের অংশগ্রহণ : বরাবরের মতোই জুমার নামাজের ভিআইপিদের অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক, ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খান, গাজীপুর ২ আসনের সাংসদ জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাহাবুব আলম, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্তরের সরকারি কর্মকর্তারা ইজতেমা মাঠে শরিক হন।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা : শুক্রবার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাহাবুব আলম জানান, জুমার নামাজ আদায় করতে আশপাশের জেলার অনেক মুল্লিরা এখানে আসেন। জুমার নামাজ উপলক্ষে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যানজটমুক্তভাবে চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক ট্রাফিক পুলিশ রাখা হয়েছে।

বিদেশি মেহমান : বিদেশি মুসল্লিদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সিসি ক্যামেরায় বিদেশীদের প্রতিটি খিত্তা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত প্রায় ৪৭টি দেশের ২ হাজার ৩৬১ জন বিদেশি ময়দানে অবস্থান করছেন।

ইজতেমা মিডিয়া বিষয়ক সমন্বয়কারী হাবিবুল্লাহ রায়হান বলেন, ‘জুমার নামাজের অংশ নিতে প্রায় চল্লিশ লাখ মুসল্লি ময়দান ও তার আশপাশের সড়ক ও এলাকায় অংশ নিয়েছেন। নামাজ শেষে এখন বয়ান হচ্ছে। দেশ ও বিদেশ থেকে এখনো মুসল্লিরা ময়দানে আসছেন। ময়দানে মুসল্লি ধারণের জায়গা নেই।

ইজতেমায় ৬ মুসল্লির মৃত্যু : বিশ্ব ইজতেমায় শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত ৬ মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে শসকষ্ট ও বার্ধক্যজনিত কারণে তিনজনের মৃত্যু হয়। তারা হলেন, জামালপুর জেলা সদরের মতিউর রহমান (৫৫), নেত্রকোনা জেলা সদরের একলাছ মিয়া (৭০) ও ভোলা জেলা সদরের শাহা আলম(৫০)। এর আগে নেত্রকোনা জেলার আব্দুস সাত্তার (৭০), বি-বাড়িয়া জেলার ইউনুস মিয়া(৬০) ও চাপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরের জামাল উদ্দিন (৪০) এর মৃত্যু হয়।

আয়োজক কমিটির সংবাদ সম্মেলন : বিশ্ব ইজতেমায় সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ইজতেমা আয়োজক কমিটি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ইজতেমার প্রথম পর্বেও প্রধান সমন্বয়কারি প্রকৌশলী মেজবাহ উদ্দিন, মুফতি আমানুল হক, ডা. আজগর আলী, গাজীপুর জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম ও আবুল হাসানাত।

এসময় মুফতি আমানুল হক বলেন, ইজতেমায় বেসুমার লোক সমাগম হয়েছে। এই ইজতেমা হলো সুরা এ ইজতেমা। আমরা জামাত মেনে চলি। আমাদের অন্য পক্ষ ব্যক্তি মেনে চলে। এছাড়া তাদের সাথে আমাদের কোন বিরোধ নেই। আমাদের অনুরোধ আমাদেরকে কোন পন্থি উল্লেখ করবেন না। আমরা সুরা এ নিজাম। যোবায়ের সাহেব যদি ইন্তেকাল করেন তবুও এ জামাত থাকবে। €

উল্লেখ্য, ২ই ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ৪ই ফেব্রুয়ারি রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের (জুবায়েরপন্থি) বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে। মাঝে ৪ দিন বিরতি দিয়ে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাযের অনুসারী (মাওলানা সাদপন্থি) মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে অংশ নেবেন।

১১ই ফেব্রুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে এবারের ৫৭তম বিশ্ব ইজতেমার পরিসমাপ্তি ঘটবে।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত
ব্রেকিং নিউজ :