300X70
শনিবার , ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছে আ.লীগের নেতাকর্মীরা

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
অক্টোবর ২৮, ২০২৩ ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজপথ আয়ত্ত্বে রেখে বিরোধী রাজনৈতিক দলকে কোনো ধরনের অপতৎপরতার সুযোগ না দিতে ব্যাপক প্রস্তুতির পর এখন মাঠে নামছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

মূলত নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের এই সমাবেশে মাঠে থাকার বড় ধরনের বার্তা দিতে চায় দলটি। সেই সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের অব্যাহত আন্দোলনের বিরুদ্ধে দলের শক্তিশালী অবস্থানও জানান দিতে মরিয়া আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, স্মরণকালের সবচেয়ে বড় গণজমায়েত হবে আওয়ামী লীগের এই শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ।

ওবায়দুল কাদের জানান, শনিবার বেলা ১১টায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে সংষ্কৃতি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এর শুরু হবে।

বেলা আড়াইটার দিকে বক্তব্য পর্ব শুরু হবে।
সমাবেশ সফল করতে গত দু’দিন নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রস্তুতি বৈঠক, মিটিং, মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ।

সেই সঙ্গে প্রস্তুস্তি আছে যেকোনো ধরনের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি বা অপতৎপরতা রুখে দেওয়ার। এক্ষেত্রে বিএনপি-জামায়াতকে কোনো ছাড় দেবে না ক্ষমতাসীনরা।

ওয়ার্ড, থানা এবং মহানগর পর্যায়ে মূল দল ছাড়াও সহযোগী সংগঠনগুলোর দায়িত্বশীলদের সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

বিএনপি-জামায়াতের সমাবেশ থেকে দুরভিসন্ধিমূলক কোনো কিছু এলে তাৎক্ষণিক তা মোকাবিলার নির্দেশ আছে।

সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে নিয়ে বিএনপির দুরভিসন্ধিমলক ষড়যন্ত্র আছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলের নেতাকর্মীদের সেভাবে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ভোটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকের পরাজিত করতে পারবে না জেনে তারা ষড়যন্ত্র ও সন্ত্রাসের পথে এগিয়ে যাচ্ছে।

‘বিএনপি বাংলাদেশকে সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য পরিণত করতে চায়। তাদের রাজনীতি হলো যেকোনো উপায় ক্ষমতা দখল করা।

বর্তমানে সেটাই তার প্র্যাকটিস করছে। জনগণের ওপর দুঃশাসন চাপিয়ে দিয়ে নিজের দুর্নীতির মাধ্যমে নিজেদের আখের গোছাতে চায়,’ বলেন তিনি।

এদিকে অনুমতি পাওয়ার পর শুক্রবার রাত থেকে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে মঞ্চ তৈরির কাজ শুরু করে আওয়ামী লীগ।

সমাবেশের আগে দিন সন্ধ্যা থেকে মধ্য রাত অবধি নেতাকর্মীদের পদচারনায় মুখরিত ছিলো ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে ছোট ছোট মিছিল নিয়ে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আসতে শুরু করেন নেতাকর্মীরা।

এ সময় অন্তত ১৫ থেকে ২০টি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র মিছিল নিয়ে নেতাকর্মীদের জড়ো হতে দেখা যায়। সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে মিছিল সহকারে আসেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন।

এ সময় ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ, তাঁতী লীগের নেতারা মিছিল নিয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসেন।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত
ব্রেকিং নিউজ :