300X70
রবিবার , ২৬ মে ২০২৪ | ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত খবর
  7. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  8. এছাড়াও
  9. কবি-সাহিত্য
  10. কৃষিজীব বৈচিত্র
  11. ক্যাম্পাস
  12. খবর
  13. খুলনা
  14. খেলা
  15. চট্টগ্রাম

৪৫০ বছরের পুরনো ভবন ভেঙে ফেলায় সাবেক শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ প্রকাশ

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন২৪.কম
মে ২৬, ২০২৪ ৭:৪৫ অপরাহ্ণ

বাঙলা প্রতিদিন ডেস্ক : ৪৫০ বছরের পুরনো ভবন ভেঙে ফেলায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ঢাকা কলেজিয়েট স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থীরা।

দাবি করেছেন, হেরিটেজ হিসেবে ভবনটি রক্ষা করা যেতো। কিন্তু কিছু মানুষের অদূরদরশিতার কারণে এটি রক্ষা না করে ভেঙে ফেলা হয়েছে। নতুন ভবন নির্মাণের সময় পাশেই একই ডিজানে আরেকটি ভবন নির্মাণ করে ১৭৯ বছরের পুরনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নানান স্মৃতি ধরে রাখতে জাদুঘর প্রতিণ্ঠা করা হোক।

গতকাল শনিবার (২৫ মে) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানের সভা প্রধান ছিলেন ১৯৫৬ সালে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী, প্রবীণ সাংবাদিক মুহাম্মদ কামরুজ্জামান।

বক্তব্য রাখেন ১৯৫৬ সালে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ও কাজী ফার্মসের কর্ণধার কাজী জাহেদুল ইসলাম, ১৯৬৪ সালে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ও গবেষক হাশেম সূফী, ১৯৮০ সালে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ও নোভা ব্যান্ডের জনপ্রিয় গায়ক এ এফ এম করিম (ফজল)-সহ বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। সভায় সঞ্চালনা করেন সাবেক শিক্ষার্থী ও সিনিয়র সাংবাদিক রহমান মুস্তাফিজ।

কাজী জাহেদুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, পৃথিবীর কোথাও লিভিং হিস্ট্রি ভেঙে ফেলা হয় না। ১০০ বছরের পুরনো ভবন ভাঙতেও রাষ্ট্রের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হয়। অথচ আমাদের ৪৫০ বছরেরও বেশি পুরনো ভবনটি ভেঙে ফেলা হলো।

স্কুল ভবনের ইতিহাস তুলে ধরে হাশেম সূফী বলেন, বাহাদুর শাহ পার্কের দুই পাশে ছিল কলেজিয়েট স্কুল ভবন। পরে একপাশে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবন ও আরেক পাশের জায়গা গভঃ মুসলিম হাই স্কুলকে দেয়া হয়েছিল। যে ভবনটি ভাঙা হয়েছে সেখানে ১৮৯ বছরের প্রাচীণ এই স্কুলটি ছিল গত ৭৮ বছর যাবৎ। এর আগে এটি ছিল সার্কিট হাউস। তারও আগে পর্তুগীজ ও ইংরেজদের গেস্ট হাউস। ভবনটি ভেঙে ফেলার মধ্য দিয়ে আমাদের আবেগে আঘাত দেয়া হয়েছে।

সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেয়ার সময় রাহমান মুস্তাফিজ বলেন, মূলত আমাদের ৪৫০ বছরের পুরনো ভবন ভেঙে ফেলা, স্কুলের বর্তমান শিক্ষার্থীদের সুযোগ সুবিধার বিষয়ে কথা বলা এবং ১৯০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে নিজেদের সংগঠিত করাই এই সভার উদ্দেশ্য। আমাদের আজকের এই আয়োজন ঢাকা কলেজিয়েট স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের হাতকে শক্তিশালী করবে।

সভার শুরুতে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের প্রয়াত সভাপতি এইচ টি ইমাম, সহ-সভাপতি অধ্যাপক কবীর চৌধুরী, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক-সহ যেসব শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারি মারা গেছেন তাদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

সর্বশেষ - খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত

‘আগামী ২০৩০ সালে দেশের রিজার্ভ ৫০ বিলিয়ন ডলারে যাবে’

মাক্সকে ভ্যাকসিন হিসেবে ব্যাবহার করতে হবে: রাজশাহী জেলা প্রশাসক

মহেশখালীতে নৌকা-বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে নিহত ১, গুলিবিদ্ধ ৪

সৌদি আরবে ঈদুল আজহা ২০ জুলাই

পানি ব্যবহারে সতর্ক না হলে দেশের কোটি কোটি মানুষ সংকটে পড়বে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

তাড়াশে গ্যাসবাহী লড়িতে মোটর সাইকেল আরোহী নিহত ৩

শাহজালালে বিমান থেকে ১২ কেজি স্বর্ণবার জব্দ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে ১ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গ্রেফতার

কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে কবে, কখন, কীভাবে ভর্তি পরীক্ষা

জানিয়েছেন, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ: বঙ্গবন্ধুর লেখা বইগুলো ১২টি ভাষায় অনূদিত

ব্রেকিং নিউজ :