প্রশাসনের সর্বস্তরে জবাবদিহির তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ফাইল ছবি)

বিশেষ প্রতিবেদক:
সম্পদের যথাযথ ব্যবহার এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে সরকারি কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া কারো কথায় কান না দিয়ে আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করতে সচিবদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) গণভবন থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর এবং শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির ফলে সরকারি প্রতিষ্ঠানের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রতিটি মন্ত্রণালয়কে শুদ্ধাচারের বিষয়ে নিজস্ব পরিকল্পনা করে তা বাস্তবায়ন করার নির্দেশ দেন বঙ্গবন্ধুকন্যা।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় গেলে নির্বাচনী ওয়াদা ভুলে যায় না। পরিকল্পনা গ্রহণে ও বাস্তবায়নে নির্বাচনী ইশতেহার সামনে থাকে।

অনুষ্ঠানে সামরিক স্বৈরশাসক ক্ষমতায় থাকলে জনগণ অবহেলিত থাকে বলে মন্তব্য করেন সরকারপ্রধান।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিয়ে অনেকে অনেক সমালোচনা করলেও তারা করোনা পরিস্থিতিতে যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে। সেসময় যে কাজগুলো তাৎক্ষণিক করার কথা ছিল, সেটা তারা যথোপযুক্তভাবে করেছে দেখেই আমরা করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছি। সবসময় সেই কথা মাথায় রাখতে হবে। প্রত্যেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছে। অনেক ডাক্তার নার্স মারা গেছে। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উন্নয়নের সব পরিকল্পনা জনগণের জন্য জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রশাসনের প্রতিটি স্তরে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

প্রত্যেকটি মন্ত্রণালয়কে নিজস্ব পরিকল্পনা নিয়ে শুদ্ধাচার বাস্তবায়নেরও নির্দেশ দেন সরকারপ্রধান।

এসময় তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশে এক শ্রেণির লোকই আছে যাদের সমালোচনা করাই অভ্যাস। পান থেকে চুন খসলেই নানা কথা বলবে, কিন্তু নিজেরা কিছু করবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সঠিক পথে আছি কিনা সেটা আত্মবিশ্বাসের ওপর নির্ভর করে। সবাই যখন কাজ করবেন আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করবেন। কে কী বলবে, কে কী লিখলো তা নিয়ে মাথা ঘামাবেন না। নিজের কাজ নিজে আত্মবিশ্বাস নিয়ে করবেন।