সরকারি চাকরির বয়স ১০ বছর হলেই পাবে উচ্চতর গ্রেড

নিজস্ব প্রতিবেদক:

যেসব সরকারি কর্মচারীর চাকরির বয়স ১০ বছর হয়ে গেছে, তবে পদোন্নতি বা টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড একবারও পাননি, তাদের ক্ষেত্রে উচ্চতর গ্রেড দিতে এখন থেকে কোনো বাধা থাকছে না।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তাদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার জন্য হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

সূত্র জানায়, যেসব সরকারি কর্মচারী একই পদে ১০ বছর চাকরি করার পর একবারও পদোন্নতি পাননি, তাদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার ক্ষেত্রে গত ১৬ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের মতামত চেয়ে চিঠি দেয় হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়।

পরে অর্থ বিভাগ এ বিষয়ে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়কে জানায়, জাতীয় বেতনস্কেল, ২০১৫ এর অনুচ্ছেদ ৭ (১) এর অধীনে উচ্চতর গ্রেড প্রদানের বিষয়ে কার্যক্রম গ্রহণে কোনো বাধা নেই।

এ প্রসঙ্গে অর্থ বিভাগের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, এ বিষয়ে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়কে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।

তবে ২০১৬ সালের ২১ সেপ্টেম্বর অর্থ বিভাগের এক পরিপত্রে বলা হয়েছিল, একই পদে কর্মরত কোনো সরকারি কর্মচারী দুই বা তার চেয়ে বেশি টাইম স্কেল বা সিলেকশন গ্রেড পেয়ে থাকলে নতুন পে স্কেল অনুযায়ী তিনি উচ্চতর গ্রেড পাবেন না। তবে এরইমধ্যে একটি মাত্র টাইম স্কেল অথবা সিলেকশন গ্রেড পেলে নতুন স্কেলে শুধু একটি উচ্চতর গ্রেড পাবেন।

ওই পরিপত্রের বিরুদ্ধে সরকারি চাকরিজীবীরা রিট করলে অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। এ বিষয়টি এখন হাইকোর্টের আপিল বিভাগে বিচারাধীন রয়েছে।

এতে সরকারি কর্মচারী দুই বা তার চেয়ে বেশি টাইম স্কেল বা সিলেকশন গ্রেড পেয়ে থাকলে নতুন পে স্কেল অনুযায়ী তিনি উচ্চতর গ্রেড কয়টা পাবেন এসব বিষয়ে কোনো মতামত দেয়নি অর্থ বিভাগ। এ বিষয়ে আপিল বিভাগ যতদিন পর্যন্ত কোনো রায় না দিতে পারে, অর্থ বিভাগ এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারবে না।