করোনার সময় ভ্রমণে সতর্কতা

ভ্রমণ ডেস্ক: করোনাভাইরাসের দাপটে স্থবির হয়ে পড়েছিল বিশ্ব। দেশ-বিদেশের সব ধরনের ভ্রমণ বন্ধ ছিল। যদিও সম্প্রতি স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিছুটা কার্যক্রম চলছে পর্যটন শিল্পে। বিধি-নিষেধ মেনেই যেতে হচ্ছে বিভিন্ন স্পটে। কিছু পর্যটন কেন্দ্রে যেতে হচ্ছে অনুমতি নিয়ে। তবে সমুদ্রসৈকত, পাহাড়, বন বা বিনোদন রিসোর্টে যাওয়া যাচ্ছে। মূল কথা হচ্ছে- যেখানেই যাবেন নিরাপদ থাকার দায়িত্ব আপনার। তাই আসুন জেনে নেই করোনাকালে ভ্রমণে করণীয় ও বর্জনীয় সম্পর্কে-

• ভ্রমণে যাওয়ার আগে নিজের করোনা পরীক্ষা করে নিন।
• যদি কোনো হোটেল-মোটেল বা রিসোর্ট করোনার পরীক্ষার রিপোর্ট চায়, তাতে আপনার সুবিধা হবে।
• কোনো হোটেল বা ট্রাভেল কোম্পানি বয়স্ক এবং শিশুদের সঙ্গে নিতে নিষেধ করছে কি না জেনে নিন।
• অতিথি চেকআউটের পর কর্তৃপক্ষ কি আগের মতো বিছানার চাদর, বালিশের কভার, পর্দা, কুশন বদলে দিচ্ছে কি না?
• প্রয়োজনীয় ওষুধ, অতিরিক্ত মাস্ক, গ্লাভস, ডিসপোজেবল ওয়াইপস, হেড কভার, সাবান এবং পর্যাপ্ত স্যানিটাইজার নিয়ে যাবেন।
• যেসব জায়গায় বেশি হাত দেওয়া হয়, হোটেলে ঢুকেই সেগুলো নিজেরা স্যানিটাইজ করে নেবেন।
• হোটেলের কক্ষ থেকে বের হলেই মাস্ক, সানগ্লাস ও হেয়ারকভার পরে নিন।
• বাইরে থেকে এসেই গোসল করবেন। এমনকি পরনের জামা-কাপড় সঙ্গে সঙ্গে ধুয়ে নিন।
• নিজের গাড়ি থাকলে ভালো। না হলে স্থানীয় গাড়ি ব্যবহার করলে বসার জায়গাটা নিরাপদ করে নেবেন।
• বেড়াতে গিয়েও নিরাপদ শারীরিক দূরত্বের কথা মনে রাখবেন। সব সময় নির্দেশিত নির্দিষ্ট বৃত্তে অবস্থান করবেন।
• খাবার হোটেলের কক্ষে এনে খাবেন। খাবারের প্যাকেট বা পানির বোতল খোলার আগে সাবান দিয়ে হাত-মুখ ধুয়ে নিন।
• পারলে সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা করুন। লিফট বা এসকালেটর ব্যবহার না করাই ভালো।
• সৈকত যদি ফাঁকা থাকে তাহলে সমুদ্রস্নানে কোনো সমস্যা হওয়ার কথা নয়।
• এলাকার বাসিন্দারা পর্যটক দেখলে আপত্তি করেন কি না জেনে নিন। জনবহুল এলাকায় না যাওয়াই ভালো।
• সব সময় এসির মধ্যে থাকবেন না। পারলে মাঝে মাঝে জানালা খুলে রাখবেন।
• পারলে স্পা রুম, সুইমিং পুল ও রাইডগুলো এড়িয়ে চলাই ভালো।
• বেড়াতে যাওয়ার আগে যেকোনো শারীরিক সমস্যা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া যাবেন না।