রোববার ইডেন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা হত্যা মামলার রায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল রোববার (৪ অক্টোবর)। ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালতে এ রায় ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আবু আব্দুল্লাহ ভূইয়া জানান, এই রায়ে আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড আশা করছি।

অন্যদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী মতিউর রহমান ও এমএ মজিদ তাদের আসামির ন্যায়বিচার দাবি করেন।
গত বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শুনানি শেষে রায় ঘোষণার জন্য ৪ অক্টোবর তারিখ ধার্য করেছিলেন ট্রাইব্যুনাল। মামলার আসামি হলো- দুই গৃহকর্মী রিতা আক্তার ওরফে স্বপ্না এবং রুমা ওরফে রেশমা।

মামলাটিতে মোট ৩৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৭ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন আদালত। ২০১৯ সালের ২১ জুলাই মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা নিউমার্কেট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন মজুমদার আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বাসায় থাকা ২০ ভরি সোনা, একটি স্যামসাং মোবাইল সেট এবং নগদ ৫০ হাজার টাকা চুরি করতে আসামিরা মাহফুজাকে নাকে-মুখে ওড়না পেঁচিয়ে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করে বলে অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে।
অভিযোগপত্রে রুনু বেগম ওরফে রাকিবের মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত না হওয়ায় তদন্ত কর্মকর্তা তাকে অব্যাহতির আবেদন করেন। পরে বিচারক তাকে অব্যাহতি দেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের নিজ বাসায় খুন হন মাহফুজা চৌধুরী পারভীন। এলিফ্যান্ট রোডের সুকন্যা টাওয়ারের একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন ইডেন কলেজের সাবেক এই অধ্যক্ষ। ওই ঘটনায় নিহতের স্বামী ইসমাত কাদির গামা নিউমার্কেট থানায় বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় দুই গৃহকর্মী স্বপ্না (৩৬) ও রেশমাসহ (৩০) তিনজনকে আসামি করা হয়। পরবর্তীতে স্বপ্না ও রেশমা এবং দুই গৃহকর্মীর যোগানদাতা রুনু বেগম ওরফে রাকিবের মাকে গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে নেয় পুলিশ। স্বপ্না ও রেশমা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। বর্তমানে তারা দুজনই কারাগারে রয়েছে। মাহফুজা চৌধুরী ২০০৯ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ইডেন কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।