শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের লাইক পোস্ট শেয়ারে সতর্কতা থাকার নির্দেশনা

ফেসবুক ব্যবহারকারী

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারের এক নির্দেশনায় সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয় এমন কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও আপলোড করা থেকে কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বিরত থাকতে বলেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। এছাড়াও এ রকম পোস্টে কমেন্ট, লাইক বা শেয়ারও করার ওপরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মাউশি।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাতে এমন তথ্য জানা যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন গ্রুপ ও পেজের অ্যাডমিনদের জন্য নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পোস্ট অনুমোদন করার সময় সরকারি নীতিমালা পরিপন্থী, স্ব স্ব প্রতিষ্ঠান, দপ্তর ও সংস্থার বিপক্ষে অবস্থানকারী কোনো পোস্ট অনুমোদন করবেন না। অন্যথায় পোস্টদাতা ও অ্যাডমিন উভয়ের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এসব ব্যাপারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের দৃষ্টি রাখতে অনুরোধ করেছে মাউশি।

এর আগে মাউশি থেকে গতকাল (৭ অক্টোবর) বুধবার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সতর্কতার সঙ্গে ব্যবহারের জন্য এসব নির্দেশনা দেওয়া হয়। দেশের সব সরকারি কলেজের অধ্যক্ষদের এই নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনায়, জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা অন্য কোনো পেশাকে হেয় করে পোস্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের এসব ‘বিধি’র ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়ে তদন্ত করে প্রমাণসহ মাউশি-কে জানাতে বলা হয়েছে।
কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের এ সংক্রান্ত গাইডলাইন ও সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে বলা হয়েছে।

‘রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি’ বা ‘জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি’র সংজ্ঞা উল্লেখ না করে সোশ্যাল মিডিয়ায় বর্জনীয় সম্পর্কে আরও বলা হয়, জাতীয় ঐক্য ও চেতনার পরিপন্থী তথ্য প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে হবে; সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট বা আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটতে পারে এমন কোনো পোস্ট দেওয়া চলবে না।