আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস আজ

বাংলা প্রতিদিন ডেস্ক: প্রতিনিয়তই কন্যাশিশুরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। ঘরে-বাইরে, শহর-গ্রাম, চরাঞ্চল-উপকূল কোথাও নিরাপদ নয় কন্যাশিশু। আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস আজ।

জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোতে প্রতিবছর এই দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়ে থাকে। এই দিবসকে মেয়েদের দিনও বলা হয়। বাংলাদেশে দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘আমরা সবাই সোচ্চার বিশ্ব হবে সমতার’।

লিঙ্গবৈষম্য দূর করা এই দিবসের অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ক্ষেত্র হলো শিক্ষার অধিকার, পরিপুষ্টি, আইনি সহায়তা ও ন্যায় অধিকার, চিকিৎসাসুবিধা ও বৈষম্য থেকে সুরক্ষা, নারীর বিরুদ্ধে হিংসা ও বলপূর্বক তথা বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা পালন। দিবসটি উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

মূলত প্ল্যান ইন্টারন্যাশনালের ‘কারণ আমি একজন মেয়ে’ (Because I am a Girl) নামক আন্দোলনের ফসল হচ্ছে আজকের এই আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস। এ আন্দোলনের মূল কর্মসূচি ছিল, বিশ্বজুড়ে কন্যার পরিপুষ্টি সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা।

সংস্থাটির কানাডা অফিসের কর্মচারীরা এ আন্দোলনকে বিশ্বদরবারে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে কানাডা সরকারের সহায়তা নেন। কানাডাই প্রথম জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস পালনের প্রস্তাব দেয়। ২০১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ সভায় প্রস্তাবটি গৃহীত হয়। পরবর্তী বছর অর্থাৎ ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস পালন শুরু হয়।

প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবসের প্রতিপাদ্য ছিল ‘বাল্যবিবাহ বন্ধ করা’।