বাসায় ফিরলেন সৌরভ গাঙ্গুলি

মাঠে মাঠে ডেস্ক : ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ছাড়া পেয়েছেন হাসপাতাল থেকে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাকে ছাড়পত্র দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এরপর সৌরভ বাসায় চলে যান। ভারতীয় গণমাধ্যম এবিপি আনন্দ সৌরভকে ছাড়পত্র দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে।

ছাড়া পেয়ে সৌরভ বলেন, ‘উডল্যান্ডস (হাসপাতাল) কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ। এতদিন যারা মঙ্গল কামনা করেছেন, এখানে থেকেছেন ধন্যবাদ তাদেরও। আমি শিগগিরই বিমানে চড়ার জন্য প্রস্তুত।’

দুইদিন আগে সৌরভকে দেখে সম্পূর্ণ ফিট ঘোষণা দিয়েছিলেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি। সৌরভকে দেখার জন্য তিনি ব্যঙ্গালুরু থেকে চার্টার্ড ফ্লাইটে কলকাতা উড়ে আসেন।

গত শনিবার (২ জানুয়ারি) বুকে ব্যথা নিয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন সৌরভ। তার হার্টের আর্টারিতে তিনটি ব্লকেজ ধরা পড়ে। এরপর থেকে হাসপাতালেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

সৌরভকে দেখার পর ভারতীয় গণমাধ্যমে দেবী শেঠি বলেছিলেন, ‘সৌরভ একেবারে ফিট। স্বাভাবিক জীবনযাপন তো বটেই, কিছুদিন পর ম্যারাথনও দৌড়াতে পারবেন। চাইলে ক্রিকেটও খেলতে পারবেন। বিমানও চালাতে পারবেন। কোনও সমস্যা হবে না।’

দেবী শেঠিসহ ১০ জন চিকিৎসককে নিয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয় সৌরভের চিকিৎসার জন্য। দফায়-দফায় বৈঠক চলে বিদেশি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গেও। হাসপাতালে গিয়ে দেবী শেঠি প্রথমে দেখা করেন সৌরভের সঙ্গে। এরপর মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে মিটিং শেষে মুখোমুখি হন গণমাধ্যমের।

সৌরভের হৃদযন্ত্রে কোনো সমস্যা নেই জানিয়ে দেবী শেঠি বলেছেন, ‘হার্ট অ্যাটাক হলেও সৌরভের হৃদযন্ত্রে কোনও সমস্যা নেই। শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়ায় কোনো সমস্যা হবে না। একেবারে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবেন।’

জিম করতে গিয়ে প্রথমে পিঠে ব্যথা অনুভব করেন সৌরভ গাাঙ্গুলি। এরপর মাথা ঘুরে পড়ে যান তিনি। তার আগে বুকে ব্যথা হচ্ছিল তার। সৌরভ নিজেই ফোন করে চলে যান হাসপাতালে।