জয়পুরহাটে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী তরুণী ধর্ষণের শিকার

প্রতিনিধি, জয়পুরহাট: ফাঁকা মাঠে বিল থেকে শাক তুলে বাড়ির ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার হয়েছে (২০) বছরের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ধরঞ্জী ইউনিয়নের সালুয়া গ্রামে। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণীর বাড়ি উপজেলার উঁচনা গ্রামে। ভুক্তভোগী তরুণী এ ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে পাঁচবিবি থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে ।

মামলার এজাহারে জানা গেছে, গত (৬ জানুয়ারি) বুধবার বিকালে ধরঞ্জী ইউপির সালুয়ার বিল থেকে শাক তুলে মাঠ দিয়ে বাড়ি ফিরছিল ওই তরুণী। এ সময় উঁচনা গ্রামের আয়েজ উদ্দীনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২১), ফজলুর রহমানের ছেলে হাবিব (২৬) ও জাহান আলীর ছেলে মোনোয়ার হোসেন (১৯) সেখানে চলে আসে।

তরুণীকে একা পেয়ে তিন যুবক পাশের আলু ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় ওই তরুণী চিৎকার করে ধর্ষণ না করার জন্য বললেও কোনও কথা না শুনে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি জানালে পরিবারের লোকজনসহ শুক্রবার দুপুরে থানায় এসে মামলা দায়ের করেন।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, তরুণীর পরিবারের সবাই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী হওয়ায় তরুণী নিজেই বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণের মামলা করেছে। তরুণীকে মেডিকেল টেস্টের জন্য জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে জোর তৎপরতা চালানো হচ্ছে।