মাশরাফির নড়াইলে ফাইনাল খেলবেন আশরাফুল-সাব্বির-নাঈমরা

মাঠে মাঠে প্রতিবেদক : নড়াইলের শেখ রাসেল সেতুর এপার-ওপারে ক্রিকেট উন্মাদনা। পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ডে ছেয়ে যায়নি শহর। কিন্তু মানুষের মুখে মুখে ক্রিকেটের জোয়ার। সবার একটাই কথা, কাল (আজ) আমাদের ক্রিকেট ফাইনাল।’

ক্রিকেটের সঙ্গে নড়াইলের সম্পর্ক দীর্ঘ দুই দশকের। ছোট্ট এ শহরের ছেলে মাশরাফি বিন মুর্তজা হয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের পালাবদলের নায়ক। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সফলতম অধিনায়ক এখন এ শহরের সাংসদ। তার পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনায় নড়াইলে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বিজয় দিবস বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, স্পন্সরড বাই ওয়ালটন’। যেখানে অংশগ্রহণ করেছিল নড়াইলের পাঁচ দল।

প্রতিযোগিতার ফাইনাল আজ অনুষ্ঠিত হবে নড়াইলের বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ স্টেডিয়ামে। মুখোমুখি হবে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ একাদশ ও এসএম সুলতান একাদশ। ফাইনাল ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে দেশের প্রথম ও একমাত্র স্পোর্টস চ্যানেল টি-স্পোর্টস। সকাল ১১টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

ফাইনালকে ঘিরে মাশরাফির নড়াইলে সাজসাজ রব। উৎসব, উন্মাদনা বেড়ে গেছে জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণে। ফাইনাল ম্যাচ জমিয়ে তুলতে নড়াইলের বাইরের দশ ক্রিকেটারকে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। মোহাম্মদ আশরাফুল, সাব্বির রহমান, নাঈম ইসলাম, আবু হায়দার রনি, জিয়াউর রহমান ঢাকা থেকে উড়ে গিয়েছেন নড়াইলে।

ব্যক্তিগত কারণে টুর্নামেন্টের ফাইনালে আসার কথা ছিল না মাশরাফির। কিন্তু প্রথমবারের মতো টুর্নামেন্টের আয়োজন সফলভাবে সমাপ্ত করতে মাশরাফি সোমবার গভীর রাতে নড়াইল পৌঁছান।

চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের জন্য আকর্ষণীয় ট্রফি ছাড়াও রয়েছে অর্থ পুরস্কার। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৩ লাখ টাকা। রানার্সআপ পাবে ২ লাখ টাকা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন মাশরাফি জানিয়েছিলেন, প্রতি বছর নড়াইলে বড় করে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হবে।