জনগণের সেবক হয়েই থাকতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

ধারাবাহিক উন্নয়নের ছোঁয়ায় ২০২১ সালের মধ্যেই দারিদ্রমুক্ত হবে দেশ

আওয়ামী লীগ সরকারের কারণেই উন্নয়নের সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ’

বাঙলা প্রতিদিন রিপোর্ট : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, টানা ৩ মেয়াদে সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণেই সমাজের সর্বস্তরে উন্নয়নের সুফল ছড়িয়ে দেয়া সম্ভব হচ্ছে।
আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের সেবক হয়ে থাকতে চান সবসময়। আর একটানা ক্ষমতায় থাকার কারণেই উন্নয়নের সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ। আজ বৃহস্পতিবার সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে একথা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর দৃঢ় প্রত্যাশা আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ধারাবাহিক উন্নয়নের ছোঁয়ায় ২০২১ সালের মধ্যেই দারিদ্রমুক্ত হবে বাংলাদেশ।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বয়স্ক ভাতা, বিধবাভাতা ও প্রতিবন্ধি ভাতাসহ সমাজের অনগ্রসর মানুষের জন্য বেশ কিছু সামজিক নিরাপত্তা সহায়তা সুবিধাভোগীদের হাতে সরাসরি পৌঁছানোর ঘোষণা দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এমন অনেক সামাজিক কর্মসূচি বন্ধ করে দিয়েছিল। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁদপুর, পিরোজপুর, লালমনিরহাটসহ বিভিন্ন জেলার ভাতা উপকার ভোগীদের কয়েক জনের সঙ্গে কথা বলেন।  এসময় ভাতা উপকার ভোগীরা তাদের জীবনের শেষ যাত্রায় সরকারের পক্ষ থেকে পাওয়া অর্থ যে পরিবারের কাছে কত অমূল্য সে অনুভূতি ব্যক্ত করেছেন।  কোন কোন উপকার ভোগী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলতে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এবং বিকাশে ভাতার টাকা পেয়ে সরকারপ্রধানের প্রশংসা করেন। তারা বলেন আর আগের মতো ব্যাংকে লাইন ধরা লাগবে না। এতে ভোগান্তি ও সময় দুটোই বাঁচবে।