সেনবাগে আড়াই মাস পর প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উত্তোলন

রোমানা আক্তার

প্রতিনিধি, নোয়াখালী: নোয়াখালীর সেনবাগে কবর থেকে রোমানা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভিষ্টিকেশন (পিবিআই)।

সোমবার (১৫ মার্চ) দুপুরে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সৈকত রায়হানের উপস্থিতিতে পিবিআই’র নোয়াখালী ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন পাটোয়ারীর নেতৃত্বে গৃহবধূর মৃত্যুর ২ মাস ১৮ দিন পর উপজেলার ৭নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজারামপুর গ্রামের আকু আলী মিঝি বাড়ির পারিবারিক কবরস্থান থেকে এ লাশ উত্তোলন করা হয়।

আদালতের আদেশের ভিত্তিতে পিবিআই কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে একই দিন বিকেলের দিকে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ নোয়াখালীর জেনারেলের হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

রোমানার লাশ উত্তোলনের খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে শতশত নারী ও পুরুষ সেখানে ভিড় জমায়। এ সময় পরিবারের স্বজনদের আহাজারিতে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভিস্টিকেশন (পিবিআই) ওসি মামুন পাটোয়ারী জানান, ২০২০ সালের ১৮ ডিসেম্বর সেনবাগ উপজেলা উত্তর মোহাম্মদপুর ইউপির করিম মাষ্টার বাড়ির সৌদি প্রবাসী মোশারফ হোসেনের স্ত্রী এক সন্তানের জননী রোমানা আক্তারের মৃতদেহ সন্ধ্যায় তার শ্বশুর বাড়ি নিজ শয়ন কক্ষ থেকে পুলিশ উদ্ধার করে। এরপর রোমানার ভাই সুরুজ মিঞা প্রকাশ সবুজ নোয়াখালীর বিচারিক আদালতে ৮ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও সেনবাগ থানা পুলিশ ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আদালতে দাখিল না করায় পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য পিবিআইকে লাশ কবর থেকে উত্তোলন করাল আদেশ দেন বিচারিক আদালত।