যে চা সহজে খুশখুশে কাশি সারাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক : এ সময় সর্দি-কাশির সমস্যায় কমবেশি সবাই ভুগছেন! এছাড়াও অ্যালার্জির কারণেও অনেকেই হাঁচি-কাশির সমস্যায় ভোগেন। বিশেষ করে খুশখুশে কাশি বেশ যন্ত্রণাদায়ক ও বিরক্তিকরও বটে। আবার এ সমস্যা সহজে সারানোও যায় না।

খুশখুশে কাশি হলে অনেকেই বাজারচলতি বিভিন্ন কাশির সিরাপ বা ওষুধে ভরসা রাখেন। তবে নানা ধরনের ওষুধ খেলেও খুশখুশে কাশির সমস্যা সারানো যায় না। তার চেয়ে বরং ভরসা রাখতে পারেন আয়েুর্বেদিক উপায়ে।

জানেন কি, এক চা পান করেই খুশখুশে কাশির সমস্যা সারাতে পারেন। তুলসি পাতার উপকারিতা সম্পর্কে সবারই কমবেশি জানা আছে। এই চা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপাকারি। বিশেষ করে খুশখুশে কাশি ও গলা ব্যথা সারাতে এই চা দারুন কার্যকরী।

প্রাচীনকাল থেকেই তুলসি পাতা আয়ুর্বেদিক দাওয়াই হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এতে আছে অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য। যা বিভিন্ন ধরনের প্রদাহ সারায়।

এছাড়াও তুলসি পাতা অ্যালার্জি, ব্রঙ্কাইটিস, হাঁপানি ও ফুসফুসের অন্যান্য রোগ থেকেও মুক্তি দেয়। প্রতিদিন তুলসি চা পান করলে ত্বকের ডার্ক সার্কেল, ব্রণ, ফুসকুড়ি ও অন্যান্য সমস্যা দূর হয়।

তুলসি পাতায় আরও থাকে ভিটামিন কে এর মতো পুষ্টিগুণ। যা রাসায়নিক ও শারীরিক চাপ থেকে বিভিন্ন অঙ্গ ও টিস্যুগুলোকে রক্ষা করে।

কীভাবে তুলসী চা তৈরি করবেন?

উপকরণ : ১. তুলসি পাতা ৮-১০টি
২. লবঙ্গ ২-৩টি
৩. এলাচ ২-৩টি
৪. পানি আধা বা এক কাপ
৫. মধু

পদ্ধতি : একটি প্যানে পানি গরম করে নিতে হবে। এবার এতে তুলসি পাতা, লবঙ্গ ও এলাচ মিশিয়ে আরও ৫-৭ মিনিট ফুটিয়ে নিন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল তুলসি চা।

এরপর নামিয়ে চা ছেঁকে নিন। প্রয়োজনে লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে চায়ের স্বাদ বাড়াতে পারেন। দিনে ২-৩ বার তুলসি চা পান করলে দ্রুত খুশখুশে কাশির সমস্যা সারবে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া