শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটকে জমি হস্তান্তর বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

প্রতিনিধি, সাভার:
আজ দুপুরে সাভারে অবস্থিত শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট কে জমি হস্তান্তর বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এম পি এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রদান করেন দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্হায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন ও শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল করিম।

অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট সংলগ্ন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়াধীন বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে ৩.৩৮ একর জমি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়াধীন শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটকে হস্তান্তর বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর স্বাক্ষরিত হয়। সমঝোতা স্মারকে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক মোঃ আব্দুল করিম এনডিসি এবং বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল জলিল স্বাক্ষর করেন।

সভাপতির বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নামে যুবসমাজের দক্ষ জনশক্তিতে রুপান্তরের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত এ ইনস্টিটিউটটিকে Centre of Excellence হিসেবে দেশে তথা বিশ্বের মাঝে এর কর্মকান্ড সুপরিচিত করার লক্ষ্যে এবং যুবদের সার্বিক কল্যাণে ইনস্টিটিউটকে উচ্চতর পর্যায় নিয়ে যাওয়ার জন্য বর্তমান কাঠামো এর সম্প্রসারণ প্রয়োজন।

এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এ সমঝোতা স্মারক সাক্ষর। আমি মাননীয় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে ধন্যবাদ জানাই দেশের এক তৃতীয়াংশ জনগোষ্ঠীর কল্যানে এগিয়ে আসার জন্য।

এটি দেশের যুব সমাজের জন্য এক মাহেন্দ্রক্ষণ। তিনি জানান, এ ইন্সটিটিউট থেকর যুবদের উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা, যুগোপযোগী প্রশিক্ষণ, যুব কর্মের ইম্প্যাক্ট এনালাইসিস ও থিংক ট্যাংক, যুব বিষয়ক নীতি ও পরিকল্পনা প্রণয়ন, যুব সংগঠন পরিচালনা, যুব বিষয়ক সেমিনার ও কর্মশালার আয়োজন, যুব বিষয়ক ডকুমেন্ট প্রস্তুত ও প্রকাশনা, যুব লাইব্রেরী ও ই-লাইব্রেরী স্থাপন, যুব বিষয়ক আধুনিক গবেষণাগার ও তথ্য ভান্ডার, যুব পার্লামেন্ট ইত্যাদি যুব কর্মকান্ডের সম্প্রসারণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এছাড়াও এই ইনস্টিটিউটে যুবদের জন্য যুব বিষয়ক ডিপ্লোমা কোর্স, আন্ডার গ্রাজুয়েট ডিগ্রী, পোষ্ট গ্রাজুয়েট ডিগ্রীসহ পিএইচডি ডিগ্রী পরিচালনা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এ সময়ে প্রধান অতিথি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইন্সটিটিউট আধুনিক ও যুগোপযোগী প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দেশের যুবসমাজকে দক্ষ মানবসম্পদে রুপান্তরিত করে দেশের বেকারত্ব নিরসন ও আত্মকর্মসংস্হান সৃষ্টিতে অনন্য ভূমিকা পালন করছে। আমি আশা করি, অচিরেই এ ইন্সটিটিউটটি সারাবিশ্বে একটি স্বনামধন্য ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে পরিনত হবে।

অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্হায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ মাহবুব আরা বেগম গিনি এমপি, নাইমুর রহমান দুর্জয় এমপি, জাকিয়া তাবাসসুম এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট ও শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইন্সটিটিউটের কর্মকর্তাবৃন্দ ও যুব সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।