আফগানিস্তানে দাতাদের বিলিয়ন ডলার সাহায্যের প্রতিশ্রুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন: আফগানিস্তানের জনগণ খাদ্য ও জীবিকা সংস্থান নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে, জাতিসংঘ প্রধান আন্তোনিও গুতেরেসের এ আশঙ্কায় সাড়া দিয়েছে দাতারা।

আল জাজিরা জানায়, আফগানিস্তানের জনগণের জন্য ১০০ কোটি ডলারের বেশি সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দাতা দেশগুলো।

তালেবানরা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটি অর্থনৈতিকভাবে আরও নাজুক অবস্থায় পড়েছে। দারিদ্র ও ক্ষুধায় জর্জরিত আফগানিস্তানে বিদেশি সাহায্য একে একে বন্ধ হয়ে গেছে ও ব্যাপক সংখ্যক মানুষ দেশত্যাগের মুখে রয়েছে। এমনকি বিদেশে থাকা রিজার্ভ জব্দ করা হয়।

সোমবার দাতা সম্মেলনে জেনেভায় গুতেরেস বলেন, দেশটির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চাহিদা পূরণের জন্য জাতিসংঘের ৬০.৬ কোটি ডলারের জরুরি আবেদনের জবাবে কতটা অর্থের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল তা বলা অসম্ভব।

কয়েক দশকের যুদ্ধ, ভোগান্তি ও নিরাপত্তাহীনতায় আফগানরা ‘সম্ভবত সবচেয়ে বিপজ্জনক সময় পার করছে’ বলে উল্লেখ করেন জাতিসংঘ প্রধান। আরও বলেন, আফগানিস্তানের জনগণের বেঁচে থাকার অবলম্বন দরকার।

গুতেরেস বলেন, এ মুহূর্তে আর্থিক ব্যবস্থা একদম সংকুচিত। এর অর্থ কয়েকটি মৌলিক অর্থনৈতিক ক্ষেত্র কাজ করছে না।

দাতা দেশগুলোর দ্রুত সাড়াদানে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন জাতিসংঘ প্রধান।

তালেবানরা ক্ষমতা দখল করলে পশ্চিমা দেশ ও দাতা গোষ্ঠীরা আফগানিস্তান থেকে পিছিয়ে আসে। এ বিষয়ে গুতেরেস বলেন, তালেবানদের যুক্ত করা ছাড়া আফগানিস্তানের ভেতরে মানবিক সাহায্য জারি রাখা অসম্ভব।

বৈঠক শেষে সাংবাদিক বলেন, এ মুহূর্তে তালেবানদের সম্পৃক্ত করা খুবই দরকার।