পুঁজিবাজার শীগগিরই বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদী অর্থায়নের প্রধান উৎস হবে : ভূমিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন:
ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন পুঁজিবাজার শীগগিরই বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদী অর্থায়নের প্রধান উৎস হিসেবে আবির্ভূত হবে। আজ সোমবার বাংলাদেশের পুঁজিবাজার উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ সম্ভাবনা উপস্থাপনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) আয়োজনে সুইজারল্যান্ডের জুরিখের এক হোটেলে ‘দ্য রাইজ অব বেঙ্গল টাইগার: পটেনশিয়ালস অব বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেটস’ (বাংলার বাঘের উদয় – বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের সম্ভাবনা) শীর্ষক রোডশো-এ বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের উপর প্রথম বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এ কথা বলেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ্ ও পুজিঁবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী উপস্থিত বিনিয়োগকারীদের আরও বলেন বাংলাদেশের অর্থনীতিতে সামষ্টিক (Macro) ও ব্যষ্টিক (Micro) অর্থনীতির মাঝে চমৎকার ভারসাম্য বিরাজ করছে – এর অর্থ আমরা ঠিক পথেই এগুচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা বাংলাদেশকে উন্নয়নের একটি নির্দিষ্ট স্তরে নিয়ে আসতে পেরেছি – এসময় ভূমিমন্ত্রী বলেন।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী এসময় উপস্থিত ইউরোপীয় বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ীদের আহবান করে বলেন, বাংলাদেশে ভ্রমণ করলে, বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলেই আপনারা বুঝতে পারবেন সেখানে কেমন পরিবর্তন হয়েছে। বাংলাদেশে কাজ করলেই বোঝা যাবে যে এই পরিবর্তনের নেতৃত্বে আছে আমাদের বেসরকারি খাত। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে রাজনৈতিকভাবে স্থিতিশীল বাংলাদেশ ঝুঁকিবিহীন বিনিয়োগে একটি নির্ভরযোগ্য নাম। আমাদের অর্থনীতি এই সময় জুড়ে দুর্দান্ত সাফল্য লাভ করেছে।

সুইস রাষ্ট্রদূত তাঁর দেশের বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন – বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান বিস্তৃত অর্থনীতি, ১৬.৮ কোটি মানুষ, বিশাল তরুণ জনগোষ্ঠী, প্রতিভাবান উদ্যোক্তাদের দিকে ভালো করে দেখুন; ভেবে দেখুন কিভাবে এই অসাধারণ সফলতার গল্পে বিনিয়োগের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট হতে পারেন।

বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী তাঁর শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, আমাদের একটি প্রশিক্ষিত এবং শিক্ষিত শ্রমশক্তি আছে, আমাদের সরকার খুবই ব্যবসাবান্ধব, আমাদের অনুকূল পরিবেশ আছে। এজন্য বাংলাদেশ সরকার আজ আপনাদের আমন্ত্রণ জানাতে এসেছে, আমরা আপনাদের সাথে কাজ করতে চাই, আমরা চাই আপনারা আপনাদের প্রযুক্তিগত এবং উদ্ভাবনী সম্পদ নিয়ে বাংলাদেশে আসুন। বাংলাদেশের সাথে কাজ করলে আমাদের উভয় পক্ষের জন্যই তা লাভজনক হবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের মূলধন বাজার এবং বাণিজ্যে বিনিয়োগের সুযোগ প্রদর্শন এবং বিশ্বব্যাপী এবং অনাবাসী বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য আকৃষ্ট করার জন্য বিএসইসি এই রোডশো সিরিজ আয়োজন করেছে। এই বছরের শুরুতে দুবাই এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪টি প্রধান শহরে সফলভাবে রোড-শো সমাপ্তির পর, বিএসইসি এখন সুইজারল্যান্ডের জুরিখ এবং জেনেভায় রোড-শো পরিচালনা করছে।

সম্মেলনে অনাবাসী বাংলাদেশি এবং বিদেশী প্রাতিষ্ঠানিক এবং স্বতন্ত্র বিনিয়োগকারী এবং ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল তাঁদের সাথে আলোচনা ও মতবিনিময় করেছে এবং বাংলাদেশে শক্তিশালী অর্থনৈতিক বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগের সম্ভাবনা প্রদর্শন করেছেন; বিশেষ করে সংস্কারকৃত পুঁজিবাজারে বিপুল সুযোগ এবং বিনিয়োগকে সহজতর করার জন্য অবকাঠামোগত উন্নয়ন ব্যাপারে তাঁরা আলোকপাত করেন।

অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ, বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোঃ নজরুল ইসলাম, এসপিপি, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য মোঃ আলমগীর হোসেন এবং বেসরকারি খাতের নেতৃবৃন্দ শীর্ষ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন।