‘ফায়ার সার্ভিসে এন ইউ’র পিজিডি কোর্স চালু: কর্মমুখী শিক্ষার এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন’

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন:
বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে চালু হয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ‘পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা ইন ফায়ার সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি কোর্স’।

গতকাল সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) মিরপুরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে আনুষ্ঠানিকভাবে এই কোর্সের উদ্বোধন করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান।

এ সময় উপাচার্য ফায়ার সার্ভিসের অগ্নিসেনাদের অগ্নিনির্বাপণের বিভিন্ন ইন্সট্রুমেন্ট ও মহড়া পরিদর্শন করেন।

উদ্বোধনী বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ‘ফায়ার সার্ভিসের পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা ইন ফায়ার সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি কোর্স চালুর মধ্যদিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় একটি নতুন ধারা সৃষ্টি করতে যাচ্ছে। এ

টি শুধু ফায়ার সার্ভিসের সদর দপ্তরেই সীমাবদ্ধ থাকবে না, বরং ফায়ার সার্ভিসের আধুনিক, দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনবল সৃষ্টির লক্ষ্যে ফায়ার সার্ভিসকে সঙ্গে নিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় দেশব্যাপী এই কোর্সের সম্প্রসারণ নিশ্চিত করতে আগ্রহী।’

উপাচার্য ড. মশিউর রহমান বলেন, ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং ফায়ার সার্ভিসসহ দেশের সকল সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কাজ করে একটি বিশেষ অনুপ্রেরণা নিয়ে। আর সেই অনুপ্রেরণার মূল ক্ষেত্র হল বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগ।

মূলত মুক্তিযোদ্ধাদের যে আত্মত্যাগ সেই ত্যাগকে স্মরণ করলে সমাজের কল্যাণের জন্য সর্বদা কাজ করা ছাড়া আর কোন বিকল্প থাকতে পারে না।’

আমাদের আগামী প্রজন্মকে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে তৈরি করা ছাড়া কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে উপাচার্য বলেন, ‘আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হলে আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ, যুগোপযোগী ও বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে জ্ঞান চর্চা ও জ্ঞান সৃষ্টির এক নতুন সমাজ গড়ে তুলতে হবে।

কোভিড বাস্তবতার এই পৃথিবীতে চ্যালেঞ্জে মানুষকে জয়ী হতেই হবে। আর সেই চ্যালেঞ্জে জয়ী হতে হলে আমাদেরকে জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রয়োগিক ক্ষেত্রগুলোতে বিশেষ মনোযোগ দিতে হবে।’ উপাচার্য তাঁর বক্তব্যের শেষে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মো. নাসির উদ্দিন, কারিকুলাম উন্নয়ন ও মূল্যায়ন কেন্দ্রের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ বিন কাশেম, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিপ্তরের পরিচালক (প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) লে. কর্নেল এস. এম. জুলফিকার রহমান প্রমুখ।