সিসি ক্যামেরায় নারী সংসদ সদস্যকে ‘নজরদারি’, এমপি রিমনের বিরুদ্ধে জিডি

সংবাদদাতা, বরগুনা: বরগুনার পাথরঘাটায় সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানার বাসভবনের পাশে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে নজরদারির অভিযোগ উঠেছে বরগুনা-২ আসনের আলোচিত সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমনের বিরুদ্ধে।

সাংসদ নিজ উদ্যোগে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কলেজ রোড সড়কে এমপি নাদিরা সুলতানা সবুরের বাড়ির পাশের বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে একটি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে তাদের ওপর নজরদারি করছেন এমপি রিমন, এমন অভিযোগ নাদিরা সুলতানা ও তার পরিবারের। এ ঘটনায় পাথরঘাটা থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। পাথরঘাটা থানায় সোমবার সংসদ সদস্যের পক্ষে ওই জিডি করেছেন সেলিম খলিফা। সেলিম এমপি নাদিরার মালিকানাধীন মধুমতি টাইলস কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার।

পাথরঘাটা ডিগ্রি কলেজের প্রধান ফটকের উত্তর দিকের বিদ্যুতের খুঁটিতে সাদা একটি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। ওই ক্যামেরার সামনে সড়কের দক্ষিণ দিকে এমপি নাদিরার বাড়ি। এমপি নাদিরার স্বামী প্রয়াত এমপি গোলাম সবুর টুলু ২০০২ সালে এ বাড়িটি নির্মাণ করেছিলেন। এদিকে শওকত হাচানুর রহমান রিমন কলেজের বিপরীতে দুলাল কোম্পানির মালিকানাধীন একটি ভবনের তৃতীয় তলায় ভাড়া থাকেন। রিমনের ভাড়া বাসা থেকে এমপি নাদিরার বাসভবনের দূরত্ব মাত্র ৩০ ফুট।

এ বিষয়ে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানা সবুরের কন্যা বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফারজানা সবুর রুমকী বলেন, তাদের বাড়ির পাশে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ ঘনিষ্ঠজনদের আসা-যাওয়া মনিটরিং করছেন সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমন।

সংরক্ষিত আসনের নারী সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানা বলেন, আমার বাড়ির পাশে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে মনিটরিং করার ঘটনায় আমি বিব্রত। এ ঘটনায় আমি পুলিশে অভিযোগ করেছি। আমি শুধু এটুকুই জানতে চাই, আমার বাসার সামনে কেন সিসি ক্যামেরা বাসানো হয়েছে?

বামনা-পাথরঘাটা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমেদ সরকার বলেন, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানার বাড়ির পাশের সিসি ক্যামেরা সরিয়ে নেওয়ার জন্য ইতোমধ্যেই আমরা কাজ শুরু করেছি।