ছাগলনাইয়ায় মেয়রপ্রার্থীর মনোনয়ন ছিনতাই, অপহরণের ৪ ঘণ্টা পর মুক্তি

সংবাদদাতা, ফেনী : ফেনীর ছাগলনাইয়া পৌরসভা নির্বাচনে আবদুল হালিম (৩৮) নামে একজন মেয়র পদপ্রার্থীকে মারধর করে তার হাত থেকে মনোনয়নপত্র ছিনিয়ে নিয়ে তাকে অপহরণ করে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অপহরণের প্রায় ৪ ঘণ্টার পর রোববার রাতে পৌরসভার বাঁশপাড়া এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় শিশির ও মেজবাহ উদ্দিন নামে দুই জনকে আটক করেছে বলে জানিয়েছেন ছাগলনাইয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রফিক উদ্দিন। অপহরণ হওয়া মেয়র পদপ্রার্থী আবদুল হালিম ছাগলনাইয়া পৌরসভার পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের ছিদ্দিক আহম্মদের ছেলে।

অপহৃত আবদুল হালিম অভিযোগ করে বলেন, আসন্ন ছাগলনাইয়া পৌরসভার মেয়র পদে মনোননয়ন পত্র জামাদানের জন্য রোববার বিকেলে তিনি তার কয়েকজন আত্মীয়কে সঙ্গে নিয়ে উপজেলাস্থ নির্বাচনী কর্মকর্তার কার্যালয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীয় নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ মোস্তফার কয়েকজন সমর্থক তার গতিরোধ করেন। তারা কিছু বুঝে ওঠার আগেই কয়েকজন যুবক তাকে মারধর শুরু করেন। এসময় তার হাতে থাকা মনোনয়নপত্র ছিনিয়ে নিয়ে তাকে টেনে হেঁচড়ে একটি অটোরিকশায় তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আটকিয়ে রাখেন। ফলে তিনি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেননি।

তিনি আরও জানায়, অপহরণের প্রায় চার ঘণ্টা পর রাতে তাকে পৌরসভার বাঁশপাড়া এলাকায় রেখে যায় অপহরণকারীরা। পরে পুলিশের সহায়তায় তাকে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন জানান, ‘বিকেলে আমার কার্যালয়ের সামনে হইচই হয়েছে শুনেছিলাম। তবে নির্বাচন কার্যালয়ে মারধর বা অপহরণের কোন ঘটনা ঘটেনি। তাছাড়া আমার কাছে কেউ কোন ধরনের অভিযোগও করেনি। বাইরে কোন ঘটনা হলে সেটি আমার জানার কথা নয়।’

ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী জানান, তিনি ঘটনাটি শুনেছেন। তবে বিস্তারিত কিছুই জানেন না। তিনি ঘটনা সম্পর্কে খোঁজ নেবেন।

ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম জানান, মনোনয়নপত্র ছিনতাই ও অপহরণের খবর পেয়ে ছাগলনাইয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সোহেল পারভেজ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এক প্রার্থীর অভিযোগে ভিত্তিতে পুলিশ দুই জনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সাথে জড়িত অপরাপরদের আটকের চেষ্টা চলছে।

ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন জানান, রোববার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে মেয়র পদে ২ জন, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের তিনটি পদের বিপরীতে ১১ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৯টি কাউন্সিলর পদের বিপরীতে ৪৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র বাছাই ১১ অক্টোবর, আপিল দায়ের ১২ থেকে ১৪ অক্টোবর, আপিল নিষ্পত্তির ১৬ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১৭ অক্টোবর, প্রতীক বরাদ্দ ১৮ অক্টোবর এবং ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ ২ নভেম্বর।