ইভ্যালি পরিচালনায় কমিটি গঠনে হাইকোর্টের আদেশের দিন পেছাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন: ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পরিচালনার জন্য কমিটি গঠনের আদেশের দিন পিছিয়েছেন হাইকোর্ট। কমিটি গঠনের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবিত ব্যক্তিদের বিষয়টি পর্যালোচনা করে আদালত আগামী সপ্তাহে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী সৈয়দ মাহসিব হোসাইন।

আজ বুধবার বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। তবে আদেশের দিন তারিখ জানানো হয়নি।

এর আগে ইভ্যালির জন্য অন্তর্বর্তীকালীন বোর্ডে তিন জন সাবেক সচিবের নাম প্রস্তাব করে হাইকোর্টে পাঠিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এ বোর্ড গঠনের জন্য আদালত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে গতকাল মঙ্গলবার নাম জানতে চেয়েছিলেন। এরপর একজন সাবেক বিচারপতি, আইনজ্ঞ, সাবেক বা বর্তমান সচিব, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসহ চারজনের সমন্বয়ে ওই বোর্ড গঠন করে আজ বুধবার আদেশ দেওয়ার দিন ধার্য ছিল।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর ইভ্যালির সব নথি তলব করেছিলেন হাইকোর্ট। সে আদেশের ধারাবাহিকতায় হাইকোর্টে এসব নথি দাখিল করা হয়। একজন ক্রেতা ইভ্যালিতে পণ্য অর্ডার করার পাঁচ মাস পরও তা বুঝে না পাওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, ই-ক্যাব, ভোক্তা অধিকারে বারবার অভিযোগ করেন। কিন্তু তাতে কোনো প্রতিকার না পাওয়ায় ইভ্যালির অবসায়ন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে ইভ্যালির সব ধরনের সম্পদ বিক্রি-হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ইভ্যালিকে কেন অবসায়ন করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

আদালতে প্রতারণার শিকার গ্রাহকদের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার সৈয়দ মাহসিব হোসাইন। শুনানিতে তিনি বলেন, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের এখানে দায় রয়েছে। তারা তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেনি। এখনও এসব নিয়ন্ত্রণে কোনো আইন নেই।’

এ সময় হাইকোর্ট বলেন, ‘সাধারণ গ্রাহকদেরও লোভনীয় অফারের ক্ষেত্রে বিচার-বিশ্লেষণ করা উচিত ছিল।’