কলাবাগানে গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার, বিচার দাবিতে স্থানীয় গৃহকর্মীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন: রাজধানীর কলাবাগান এলাকার একটি বাসা থেকে সাদিয়া আক্তার (১৭) নামে এক গৃহকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দিনগত রাত পৌনে ৮টার দিকে তিনি মারা যান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কলাবাগানের কনকর্ড হাসপাতালের পাশের একটি সাত তলা ভবনের চার তলায় মির্জা আহমাদ আলীর বাসায় ৩ বছর ধরে কাজ করতেন সাদিয়া। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে।

তবে, সাদিয়ার মৃত্যুর ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে ওই বাড়িটির সামনে বিক্ষোভ করেছেন শতাধিক স্থানীয় গৃহকর্মী। এ সময় তারা বাড়িটি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়ে মারেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রতিবেশী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘গৃহকর্মীর মৃত্যুর খবর শুনে বিভিন্ন বাসায় কাজ করা বহু সংখ্যক গৃহকর্মী রাত ১০টার পর থেকে ওই বাসার সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। তারা এটাকে হত্যা বলে দাবি করছেন।’

তাদের বিক্ষোভের কারণে পাশের সড়কে যান চলা বন্ধ হয়ে যায়। পরে বেশ কিছু সংখ্যক পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন বলেও জানান ওই প্রতিবেশী।

কলাবাগান থানার এসআই বিপ্লব হোসেন এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ওই বাসার লোকজন জানিয়েছে সাদিয়া ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁছিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে, এ ব্যাপারে এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘মরদেহের ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।’