ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা, পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করায় বাবা গ্রেফতার

নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে বিয়ের প্রলোভনে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে ওই মামলায় অভিযুক্ত ছেলের বাবাকে গ্রেফতার করে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাটিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত বেলাল মাঝি (৪৫) উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের বাসিন্দা।

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় গতকাল সোমবার ভুক্তভোগী কিশোরীর মামা বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ছেলের বাবাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানে হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের মো.মিরাজ হোসেন (২৩) ওই তরুণীকে একা পেয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে এই সময় তার দুইজন আত্মীয় ঘরে প্রবেশ করলে আসামি দৌঁড়ে ঘর থেকে পালিয়ে যায়।

অভিযুক্ত মিরাজের বাবাকে বিষয়টি জানালে তিনি প্রথমে আপোষ মীমাংসা করার কথা বলে। এরপর কৌশলে ছেলেকে এলাকা থেকে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দেয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন প্রকার তালবাহানা করতে থাকেন এবং এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করলে ভুক্তভোগী পরিবারকে বিভিন্ন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি করার হুমকি ধামকি দেন। অভিযোগ পেয়ে চরজব্বর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিরাজের বাবাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

ওসি মো.জিয়উল বলেন, পলাতক আসামিকে গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।