সুস্থ জীবনযাপনে বছরে একবার ডায়বেটিস পরীক্ষার পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন : ডায়বেটিস রোগের ঝুঁকি এড়িয়ে সুস্থ জীবন যাপনে বছরে অন্তত পক্ষে একবার পরিবারের সদস্যদের রোগ পরীক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগন।

মঙ্গলবার রাজধানীর মিরপুরে ইব্রাহিম জেনারেল হাসপাতালে আয়োজিত পথযাত্রার উদ্বোধনী পর্বে বক্তারা বলেন, করোনাকালে অন্যান্য রোগের ব্যাপকতা নিয়ন্ত্রনে থাকলেও, ঘরবন্দী মানুষের ডায়বেটিসের ঝুঁকি বেড়েছে বহুগুনে।

বিশ্ব ডায়বেটিস দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে দিনব্যাপী রোগ নির্নয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ন্যাশনাল হেলথকেয়ার নেটওয়ার্কের প্রধান নির্বাহী ডাঃ এম এ সামাদ। পুরো আয়োজনের অন্যতম সহযোগী ছিলো ডেনমার্ক ভিত্তিক ঔষধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান নভো নরডিক্স।

ডক্টর সামাদ বলেন, গতিমত জীবনে অসচেতনা, বিষন্নতা থেকে ডায়বেটিস রোগের ঝুঁকিতে পরছে মানুষ। তাই, সময়মত পরিমিত খাবার গ্রহন এবং শারীরিক ব্যায়মের মাধ্যমে সুস্থ জীবনযাপন করা সম্ভব।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ইব্রাহিম জেনারেল হাসপাতাল মিরপুরের পরিচালক ডাঃ আতাউর রহমান এবং সহকারী পরিচালক কামরুজ্জামান শুভ।

এবছর ডায়বেটিস দিবসের প্রতিপাদ্য হলো ‘ডায়বেটিস সেবা নিতে আর দেরি নয়’। অর্থাৎ ইনসুলিনসহ প্রয়োজনীয় সেবার সুযোগ নিতে হবে এখনি। পাশাপাশি, এবছর আয়োজনের বিশেষ গুরত্ব হলো ইনসুলিন আবিস্কারের একশো বছর পুর্তি।

বাংলাদেশ ডায়বেটিস সমিতির অনুরোধে সরকার ১৪ নভেম্বর ‘বিশ্ব ডায়বেটিস দিবস পালনে জাতিসংঘে প্রস্তাব করে।

প্রখ্যাত চিকিৎসক জাতীয় অধ্যাপক একে আজাদ খান এখানে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা রাখেন। এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিব শতবর্ষে স্বাস্থ্য খাতে বিভিন্ন উদ্যোগের মধ্যে টাইপ – ১ ডায়াবেটিক শিশুদের জন্য বিনামূল্যে ইনসুলিন দেবার অঙ্গীকার করেছেন।