রাজধানীর আদাবর থেকে নিখোঁজ হওয়া তিন বোন যশোরে বাবার কাছে সনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন: বাংলাদেশ আমার অহংকার এই শ্লোগান নিয়ে র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র, মাদক উদ্ধার এবং চাঞ্চল্যকর এবং আলোচিত বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেপ্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।

গোয়েন্দা নজরদারী ও আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় অপরাধীদের দ্রুততম সময়ে গ্রেফতারের মাধ্যমে র‌্যাব ইতোমধ্যেই জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

গত ১৮ নভেম্বর রাজধানীর আদাবর এলাকার একটি বাসা হতে ২ জন এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ ৩ বোন রোকেয়া(১৮), জয়নব আরা (১৭) এবং খাদিজা আরা(১৬) নিখোঁজ হয়েছে। এ বিষয়ে ভিকটিমদের খালা সাজেদা নওরীন বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাতে আদাবর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন।

সাজেদা নওরীন ধারণা করেন, তার তিন ভাগ্নি টিকটকে আশক্ত ছিল বিধায় কারও প্ররোচণায় বাসা হতে বের হয়ে যেতে পারে। বিষয়টি র‌্যাব-২ জানতে পারে এবং গণমাধ্যমেও ব্যাপক ভাবে প্রচারিত হয়।

উক্ত ঘটনার প্রক্ষিতে র‌্যাব-২ গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধি করে এবং ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরবর্তীতে বিভিন্ন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে র‌্যাব জানতে পারে, ভিকটিমদের অবস্থান যশোরে এবং বিষয়টি অনেক উদ্ধেগজনক হওয়ায় র‌্যাব-২এর তদন্ত কার্যক্রম সর্বোচ্চ পর্যয়ে বেগবান করা হয়। অতি অল্প সময়ের মধ্যেই র‌্যাব-২ জানতে পারে ভিকটিমগন সকলেই তার পৈত্রিক নিবাস যশোর এ বাবার সাথে অবস্থান করছেন।

র‌্যাব-২ কর্তৃক ভিকটিমদের সাথে মোবাইলের মাধ্যমে সঙ্গে সঙ্গে শুক্রবার ভিডিও কল করে তাদের অবস্থানের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

উল্লেখ্য যে, ২০১৩ সালে ভিকটিমদের মা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর হতে ভিকটিমরা তার খালার সাথে বসবাস করছিল। উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে পরবর্তীতে আর কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

উল্লেখ্য যে, বর্তমানে তিন বোন যশোরে তাদের বাবার বাড়িতে দাদির হেফাজতে আছে।