ঈশ্বরগঞ্জে আসামিকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান

আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা

জাকির মোল্লা, ঈশ্বরগঞ্জ: ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে হাদিসা আক্তার পপির আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারী মামলার প্রধান আসামী মোনায়েমকে অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে।

( আজ ২৪ নভেম্বর) বুধবার দুপুরে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী উপজেলা পরিষদের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করে। মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারক লিপি প্রদান করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর নামাপাড়া গ্রামের তহুর উদ্দিনের মেয়ে ময়মনসিংহ মুমিনুন্নেসা সরকারী কলেজের এইচ এস সি ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী পপির সাথে একই এলাকার আমীর আলীর ছেলে মোনায়েমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

পরে মোনায়েম বিয়ের প্রলোভনে পপির সাথে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন সালিশের মাধ্যমে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। এতে মোনায়েম বিয়েতে অসম্মতি জানায়। বিয়ের অসম্মতি মেনে নিতে না পেরে পপি ৭নভেম্বর নিজ বাড়ির বাথরুমে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

এবিষয়ে পপির বড়ভাই খুরুম মিয়া বাদী হয়ে গত ৭ নভেম্বর ঈশ্বরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। অদ্যবধি মামলার প্রধান আসামি মোনায়েমকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাঃ হাফিজা জেসমিন জানান, স্বারক লিপি পেয়েছি। আসামিকে গ্রেফতার করার জন্য থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে বলা হয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল কাদের মিয়া জানান, মামলার তদন্ত চলমান। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত।