নারী কর্মীদের মনোসামাজিক উন্নয়নে পেপারফ্লাইয়ের “ডিভাস অন দ্য রাইজ”

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, বাঙলা প্রতিদিন : নারী কর্মীদের মনোসামাজিক ক্ষেত্রে উন্নয়ন বিষয়ে জ্ঞান বিনিময় সভা করলো দেশের প্রযুক্তিখাতের সবচেয়ে বড় লজিস্টিক নেটওয়ার্ক পেপারফ্লাই।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ‘ডিভাস অন দ্য রাইজ’ শিরোনামের অধিবেশনে পেপারফ্লাইয়ের নারী কর্মীরা স্বাস্থ্য, কর্মজীবন এবং কখনও কখনও ব্যক্তিগত বিষয় নিয়েও আলোচনা করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। পেপারফ্লাই প্রতি বছরে তিনবার তাদের মহিলা কর্মী – যারা- “ফ্লাইডিভাস” নামে বেশি পরিচিত- তাদের জন্য এ ধরনের সেশনের ব্যাবস্থা করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইকম এক্সপ্রেসের কো-ফাউন্ডার মঞ্জু ধাওয়ান। বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেন মাইন্ডশেয়ার বাংলাদেশের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর তাসনুভা আহমেদ এবং ব্রাক ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সামিনা ডি. আমিন।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন পেপারফ্লাই হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজার- নাসিমা আহমেদ , অ্যাসিস্টেন্ট ম্যানেজার- আবিদা চৌধুরী এবং মার্কেটিং কমিউনিকেশনের অ্যাসিস্টেন্ট ম্যনেজার- মোশারাত আহমেদ মেহেক ।

অধিবেশনে বক্তারা মেয়েদের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর উপর জোর দিয়ে বলেন, মহিলা কর্মীদের উচিৎ অফিসে তাদের সহকর্মীদের সাথে যোগাযোগ উন্নয়নের মাধ্যমে অফিসে ভারসম্যপূর্ন পরিবেশ বজায় রাখা।

ইকম এক্সপ্রেসের কো-ফাউন্ডার্ – মঞ্জু ধাওয়ান বলেছেন, “চ্যালেঞ্জ বলে কোনো শব্দ থাকা উচিত নয়। আমাদের সব কিছু করার ইচ্ছাশক্তি থাকতে হবে।“

ব্যাংকার সামিনা ডি. আমিন বলেন, “সবকিছুই নির্ভর করে ইচ্ছার উপর। আমাদের শুধু নিজের আত্ম-শক্তিকে জাগ্রত করে সঠিক ভাবে এগিয়ে যেতে হবে।”

দীর্ঘদিনের এজেন্সি ক্যারিয়ারের অভিজ্ঞতা থেকে মাইন্ডশেয়ারের তাসনুভা আহমেদ বলেন, “পেশা ও ব্যাক্তিগত জীবনের মধ্যে পার্থক্য অনেক বেশি। এখানে যদি একজনের কোন সমস্যা হয়, তবে সবার উপরে তার প্রভাব পড়বে।”

দেশের সর্ববৃহৎ প্রযুক্তিনির্ভর ডেলিভারি নেটওয়ার্ক হিসেবে পেপারফ্লাই লজিস্টিক ইন্ডাস্ট্রিতে নারী কর্মীদের সম্পর্কে “স্টিরিওটাইপগুলো” ভেঙে উদাহরণ স্থাপন করছে এবং নারীর অংশগ্রহন বাড়াতে কাজ করছে। এমনকি তাদের অপারেশনে একাধিক মহিলা রাইডার এবং ডেলিভারি অফিসার রয়েছে।