সালমানকে তখন আমার একদমই ভালো লাগেনি: আমির

বিনোদন ডেস্ক: গত তিন দশক ধরে বলিউড মাতিয়ে চলেছেন তিন খান— শাহরুখ, আমির ও সালমান। তিনজনই উপহার দিয়ে গেছেন একের পর এক সুপারহিট সিনেমা।

ক্যারিয়ার নিয়ে একে অপরের তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও তিনজনের মধ্যে রয়েছে গভীর বন্ধুত্ব। একে অপরের বিপদে এগিয়ে আসেন প্রায়ই।

তবে সালমানকে নিয়ে একবার বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেছিলেন আমির খান। মিস্টার পারফেক্টশনিস্ট জানান, শুরুর দিকে সালমানকে খুবই রূঢ় এবং বিবেচনাহীন বলে মনে হয়েছিল তার কাছে।

যদিও পরে সালমানকে নিয়ে আমিরের ধারণা বদলে যায়।

কমেডি ফিল্ম ‘আন্দাজ আপনা আপনা’ -তে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন সালমান ও আমির। সিনেমাটিকে বলিউড ইন্ডাস্ট্রির কালজয়ী কমেডি ফিল্ম বলে আখ্যা দিয়েছেন অনেকে। সিনেমায় প্রতিটি দৃশ্যই ছিল হাস্যরসে ভরপুর, সালমান ও আমিরের অভিনয় ব্যাপক প্রশংসিত হয়।

কিন্তু পরে আমির জানালেন, সালমানের সঙ্গে সেই ছবিতে তার কাজের অভিজ্ঞতা খুব সুখকর ছিল না। ছবি সাফল্য পেলেও তাদের মধ্যকার সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকেছিল।

কফি উইথ করন শো তে এসে নিজের অসন্তোষের কথা জানিয়ে আমির বলেছিলেন, ‘সালমানের সঙ্গে ‘আন্দাজ আপনা আপনা’ ছবিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা খুব খারাপ আমার। তখন তাকে আমার একদমই ভালো লাগেনি। আমার ওকে খুবই রূঢ়, অভদ্র এবং অবিবেচক মনে হয়েছিল। সালমনের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতার পর ওর থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে চেয়েছিলাম।’

কিন্তু সময়ের সঙ্গে বলি ভাইজানের প্রতি আমিরের এই ধারণা বদলায়।২০০২ সালে প্রথম স্ত্রী রীনা দত্তের বিবাহবিচ্ছেদের সময় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন আমির। তখন সালমানই তার পাশে দাঁড়ান। সাহস ও শক্তি জুগিয়েছিলেন।

সে প্রসঙ্গ টেনে ‘পিকে’ খ্যাত তারকা বলেন, ‘আমার জীবনের খুব খারাপ সময়ে সালমান বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল। আমার বিবাহবিচ্ছেদ চলছিল তখন। এভাবেই আমাদের বন্ধুত্ব শুরু। সময়ের সঙ্গে সেই বন্ধুত্ব আরও দৃঢ় হচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে নিজের আসন্ন ছবি ‘লাল সিং চাড্ডা’ নিয়ে ব্যস্ত আমির। চলতি বছরেই মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে ছবিটির। অপরদিকে সালমনের ঝুলিতে রয়েছে একাধিক ছবি। তবে সবথেকে বেশি উন্মাদনা রয়েছে ‘টাইগার থ্রি’ নিয়ে। আপাতত ওই ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত রয়েছেন বলি সুলতান।

গুঞ্জন রয়েছে, আমিরের ‘লাল সিং চড্ডা’ ছবিতে ক্যামিও চরিত্রে ধরা দেবেন সালমান। সেটি হলে পর্দায় সালমান-আমিরকে আবারও একসঙ্গে দেখার সুযোগ পাবেন দর্শকেরা।