বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি এবং বৈষ্যম্য কমিয়ে মাদকমুক্ত ব্যক্তিদের অনুপ্রাণিত করতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে সাউথইস্ট ব্যাংকের চুক্তি স্বাক্ষর গণতন্ত্র, অগ্রগতি, বিশ্ব নারী জাগরণের প্রতীক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা : তথ্যমন্ত্রী ইসলামী ব্যাংকের শরী‘আহ সুপারভাইজরি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ব্র্যাক ব্যাংকের ৮০০টি এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট চালুর মাইলফলক অর্জন মানসম্মত সুশিক্ষাই টেকসই উন্নয়নের হাতিয়ার পাটকাঠি আস্ত রেখে পাটের আঁশ ছাড়ানোর যন্ত্র আবিষ্কার করলো বারি’র বিজ্ঞানীরা ঈশ্বরদী ইপিজেডে চীনা কোম্পানির ১২০ লাখ মার্কিন ডলার বিনিয়োগ হৃদরোগ ঝুঁকি মোকাবেলায় কমিউনিটি ক্লিনিক পর্যায়ে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে হবে ‘‌পাটখাতের রপ্তানী বাণিজ্য সম্প্রসারণে অংশীজনদের সার্বিক সহযোগিতা করা হবে’ ভাষাসৈনিক সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের মৃত্যুতে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শোক করতোয়ায় নৌ-দুর্ঘটনা: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৬

বাঙালির হৃদয়ে রক্ত ক্ষরনের মাস আগষ্ট : সাজেদুল ইসলাম

নারগিস পারভীন : বাঙালির হৃদয়ে রক্ত ক্ষরনের মাস আগষ্ট, গোটা বাঙালি জাতি গভীর শোক ও শ্রদ্ধা স্মরণে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদ সদস্যদের জন্য পালন করে জাতীয় শোক দিবস।

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বাঙালির ইতিহাসে কলঙ্কিত অধ্যায় রচনা করে বাঙালি সে স্মৃতি চারন করতে গিয়ে একান্ত সাক্ষাৎ কারে মহানগর উত্তরের ৫২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পদপ্রার্থী মোঃ সাজেদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ৭ই মার্চের সেই কালজয়ী ভাষণে উদ্বুদ্ধ হয়ে হাজারও বাঙালি প্রাণের মায়া ত্যাগ করে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে। দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর বাংলাদেশ পায় স্বাধীন সার্বভৌমত্ব। ধ্বংস বিধ্বস্ত বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার মহাপরিকল্পনা শুরু করেন স্বপ্ন সারথী বঙ্গবন্ধু।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে বাংলাদেশকে ১০০ বছরে পিছিয়ে দিয়েছে কতো গুলো ক্ষমতা লোভী বিপথগামী সেনা, কিচক্রী, ঘাতকের দল। সাথে সাথে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে জাতির সভ্যতা,গণতন্ত্র ও সোনার বাংলাকে। ১৯৭৫ সালে ১৫ই আগস্ট এ বাঙালি হারিয়েছে হাজার বছরের শ্রেষ্ট্র সন্তান বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

৭৫ সালের সেই কালরাতে ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম এ হত্যাকান্ডে শিকার হন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর তিন ছেলে- বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল, শিশু পুত্র শেখ রাসেল, পুত্রবধু সুলতানা কামাল, রোজী কামাল; ভাই শেখ আবু নাসের, ভগ্নিপতি আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, ভাগনে শেখ ফজলুল হক মণি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বেগম আরজু মণি,বঙ্গবন্ধুর জীবন বাঁচাতে ছুটে আসা কর্নেল জামিলউদ্দীন সহ ১৬জন।

ওই সময় দেশে না থাকায় প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ কন্যা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তাঁর ছোট বোন শেখ রেহানা।বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আলোচনা কালে তিনি আরও বলেন, অকুতোভয়ের প্রতীক ছিলেন বঙ্গবন্ধু। ঘাতকের বুলেটের সামনে দাঁড়িয়েও খুনিদের কাছে জানতে চেয়েছিলেন ‘তোরা কী চাস? আমাকে কোথায় নিয়ে যাবি?’ আগস্টের এই পৈশাচিকতায় গোটা বিশ্বে নেমে আসে শোকের ছায়া এবং ছড়িয়ে পরে প্রচন্ড ঘৃণার ঝড়। বঙ্গবন্ধুর হত্যার খবরে নোবেল জয়ী পশ্চিম জার্মানি নেতা উইলি ব্রানডিট বলেন, মুজিবকে হত্যার পর আর বঙালিদের বিশ্বাস করা যায় না।

যে বাঙালি শেখ মুজিবকে হত্যা করতে পারে তাঁরা যে কোন জঘন্য কাজ করতে পারে। জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ২০১১ সালের জানুয়ারিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারবর্গের হত্যাকারী পাঁচ আত্মস্বীকৃত খুনির ফাঁসির দণ্ডাদেশ কার্যকর হয়েছে এবং বাকী খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচার কার্য সম্পূর্ণ করার দাবি জানান সকল মুজিব সেনার দল।

পরিশেষে বলতে চাই,এক মুজিব লোকান্তরে লক্ষ মুজিব ঘরে ঘরে। আমরা সেই মুজিব আর্দশের সেনার দল,
ঘাতকচক্র স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী এবং উন্নয়ন ও গণতন্ত্রবিরোধী চক্রের যে কোনও অপতৎপরতা-ষড়যন্ত্র ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করার জন্য আমরা সর্বদা প্রস্তুত আছি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 www.banglapratidin24.com

This will close in 1 seconds