মঙ্গলবার , ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আলোচিত খবর
  6. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  7. এছাড়াও
  8. কবি-সাহিত্য
  9. কৃষিজীব বৈচিত্র
  10. ক্যাম্পাস
  11. খবর
  12. খুলনা
  13. খেলা
  14. চট্টগ্রাম
  15. জাতীয়

কৃত্রিম বাসায় বালিহাঁসের ডিম

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২ ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : দেশি আরও অনেক পাখির মতো বালিহাঁসও কমে আসছে। এই পাখি যাতে প্রকৃতি থেকে হারিয়ে না যায়, প্রকৃতি-পরিবেশের অংশ হয়ে টিকে থাকে- সেই উদ্দেশ্যে মৌলভীবাজারের হাইল হাওরের শ্রীমঙ্গল উপজেলার বাইক্কা বিলের পাড়ে পাকা খুঁটি, বাঁশ ও বিভিন্ন ধরনের গাছে বালিহাঁসের জন্য পরীক্ষামূলক কাঠের কৃত্রিম বাসা স্থাপন করা হয়েছিল। দেড় দশক আগে এগুলো স্থাপন করা হয়।

এত দিনে সেই উদ্যোগ অনেকটাই সফল হয়েছে। প্রতি বছরই প্রজনন মৌসুমে বালিহাঁস এই কৃত্রিম বাসাগুলোকে বেছে নিচ্ছে। বাসায় ডিম পাড়ছে, বাচ্চা ফোটাচ্ছে। বাইক্কা বিল এলাকায় বালিহাঁসের অবাধ বিচরণ বেড়েছে। এবারও সাতটি কাঠের তৈরি কৃত্রিম বাসায় বালিহাঁস ডিম পেড়েছে।

বেসরকারি সংস্থা সেন্টার ফর ন্যাচারাল রিসোর্স স্টাডিজ ( সিএনআরএস) প্রতিবেশ কার্যক্রম এবং হাইল হাওরের স্থায়ী মৎস্য অভয়াশ্রম বাইক্কা বিলের ব্যবস্থাপনা ও সংরক্ষণের দায়িত্বে নিয়োজিত বড়গাঙ্গিনা সম্পদ ব্যবস্থাপনা সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, হাইল হাওর দেশের গুরুত্বপূর্ণ একটি জলাশয় এবং বাদাভূমি হিসেবে পরিচিত।
স্থানীয়ভাবে প্রাকৃতিক সম্পদসহ পরিবেশ- প্রতিবেশ সুরক্ষায় হাইল হাওরের ১০০ হেক্টর আয়তনের বাইক্কা বিলকে ২০০৩ সালে মাছ ও পাখির অভয়াশ্রম ঘোষণা করে সরকার। এ হাওরকে গুরুত্বপূর্ণ পাখি এলাকা হিসেবেও আন্তর্জাতিকভাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বালিহাঁসকে টিকিয়ে রাখতে ও প্রজনন বাড়াতে নতুন একটি উদ্যোগ নেয় সিএনআরএস। ২০০৫ সালে পরীক্ষামূলক বাইক্কা বিলের পাড়ে পাকা খুঁটি ও বাঁশ এবং গাছে ১২টি কাঠের বাসা স্থাপন করে সংস্থাটি। কিন্তু সেই বছর বালিহাঁস কাঠের কৃত্রিম আশ্রয়ে বাসা তৈরি করেনি। ২০০৭ সালে চারটি বাক্সে বালিহাঁসকে ডিম দিয়ে বাচ্চা ফোটাতে দেখা যায়। দেশের ইতিহাসে কৃত্রিম কাঠের বাক্সে এটাই ছিল প্রথম বালিহাঁসের ডিম দেওয়ার ঘটনা। এরপর থেকে প্রতিবছরই কমবেশি বালিহাঁস কৃত্রিম বাক্সে বাসা তৈরি করে ডিম পাড়ছে।

এবছর পাকা খুঁটি, বাঁশ এবং হিজল, করচ, জারুল, বট, শিমূল ও জামগাছের মধ্যে নতুন করে ২২ বাক্স স্থাপন করা হয়েছিল। কৃত্রিম বাসাগুলো এবং পাখির পরিবেশ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, এজন্য সিএনআরএস- প্রতিবেশ কার্যক্রম হাইল হাওর সাইটের পর্যবেক্ষক দল নিয়মিত পাখির এই বাসাগুলো পর্যবেক্ষণ করে। এই পর্যবেক্ষণের অংশ হিসেবে গত মাসে কৃত্রিম বাসাগুলো ঘুরে ঘুরে দেখা হয়।

এসময় দেখা যায়, ২২টির মধ্যে ৭টি কাঠের বাক্সে বালিহাঁস বাসা করেছে, ডিম দিয়েছে। সিএনআরএস- প্রতিবেশ কার্যক্রম হাইল হাওর সাইটের অফিসার মো. মনিরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ‘ আমি মনে করি, এই কৃত্রিম বাসার কারণে বাইক্কা বিলে বালিহাঁসের সংখ্যা বাড়বে।’

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

ব্রেকিং নিউজ :

বাঙলা প্রতিদিন

This will close in 1 seconds