মঙ্গলবার , ২৪ জানুয়ারি ২০২৩ | ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ ও দূর্নীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আনন্দ ঘর
  4. আনন্দ ভ্রমন
  5. আলোচিত খবর
  6. উন্নয়নে বাংলাদেশ
  7. এছাড়াও
  8. কবি-সাহিত্য
  9. কৃষিজীব বৈচিত্র
  10. ক্যাম্পাস
  11. খবর
  12. খুলনা
  13. খেলা
  14. চট্টগ্রাম
  15. জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পাচ্ছেন ১৪২ পরিবার

প্রতিবেদক
বাঙলা প্রতিদিন
জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ ১:৪২ পূর্বাহ্ণ

গাজীপুর প্রতিনিধি : উদ্বোধনের অপেক্ষা ১৪২ পরিবারের নতুন গ্রাম। শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর মৌজার সরকারি ১ নম্বর খতিয়ানভুক্ত ৮ একর ১১ শতাংশ জমিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বাস্তবায়নাধীন আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর অধীনে নাগরিক সকল সুবিধা নিয়ে ১৪২টি ঘর নির্মিত হয়েছে। এতে ১৪২টি পরিবার ঠিকানা পাবে। শুধু তাই নয়, তাদের দারিদ্র্য বিমোচনেও বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শতাধিক পরিবারের বসবাসের বিশেষ এ গ্রামে অভ্যন্তরীণ প্রশস্ত রাস্তাসহ যোগাযোগব্যবস্থা, খেলার মাঠ, পুকুর, ফলজ, ভেষজ, ওষুধিসহ বিভিন্ন গাছের চারা রোপণ, রাস্তার পাশে সৌন্দর্যবর্ধনকারী গাছ রোপণ, পারিবারিক পুষ্টি বাগান, মসজিদ, দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বিদ্যালয়, রাস্তায় সোলার লাইট স্থাপন, সুপেয় পানির জন্য প্রতি ১০ পরিবারের জন্য সাবমারজিবল পাম্প স্থাপন করা হচ্ছে। প্রতিটি পরিবারকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতেই সরকারি এই উদ্যোগ।

শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রাম। বেশ কয়েক বছর ধরেই গ্রামে নগরায়ণ শুরু হয়েছে। গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি শিল্পপ্রতিষ্ঠান। হু-হু করে বাড়ছে জমিরও দাম। তবে সব ছাপিয়ে সাধারণ মানুষের নজর এখন অন্যদিকে। গ্রামের ভেতর গড়ে উঠছে আরও একটি গ্রামে, সেটা আধুনিক সব সুবিধা নিয়েই। সে গ্রামের বাসিন্দারা এখানে বাস করার সুবাদে ঘোচাচ্ছেন আশ্রয়হীনের অপবাদ। এটি দারিদ্র্য বিমোচনে শেখ হাসিনা মডেলের এক অনন্য উদাহরণ।

জ্যৈষ্ঠের তাপদাহ, শ্রাবণের ঝড়োধারা, মাঘের হাড় কাঁপানো শীতসহ সব প্রতিবন্ধকতার সঙ্গে যাদের খোলা আকাশের নিচে আজন্ম লড়াই করতে হতো, তাদের জন্যই মূলত মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে এসব ঘর তৈরি করা হয়েছে।

গাজীপুর জেলা ও শ্রীপুর উপজেলা প্রশাসনের কঠোর নজরদারি থাকার কারণে এখানে কোনো গাফিলতি হয়নি। একটি একটি ইটের গাঁথুনিতে গড়ে উঠেছে ১৪২টি ঘর। অপেক্ষা এখন উদ্বোধনের।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বলেন, আমরা কঠোর নজরদারির মাধ্যমে এসব ঘরের কাজ সম্পন্ন করেছি। এখন আধুনিক সুবিধা গড়ে তোলার কার্যক্রম চলমান। উদ্বোধনের জন্য সবকিছুই প্রস্তুত। এসব ঘর সমাজের আশ্রয়হীন অসহায় দরিদ্র মানুষ, প্রতিবন্ধী লোকজনের মধ্যে বরাদ্দ দেওয়া হবে। অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে কয়েক ধাপের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া চলমান।

গাজীপুর জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান বলেন, গাজীপুরের নয়াপাড়া গ্রামের এই কর্মসূচি আমাদের বিরাট অর্জন। স্বাধীনতার এত বছর পর প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে আশ্রয়হীনদের মধ্যে ঘর বিতরণ করছি, এটা খুবই আনন্দের। একসঙ্গে এটি একটি পুরো গ্রাম। এখানে বহু মানুষ বসবাস করবে। তারা শুধু আশ্রয় পাবে না, প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে তারা দরিদ্রতার অভিশাপমুক্ত হয়ে স্বাবলম্বী হবে। তিনি আরও বলেন, এ পর্যন্ত গাজীপুর জেলায় ১ হাজার ৮১৭ জন ভূমি ও গৃহহীন অসহায় ছিন্নমূল পরিবারের মধ্যে আমরা সফলভাবে ঘর বিতরণ করেছি। ইতোমধ্যেই গাজীপুরকে গৃহহীনমুক্ত জেলা হিসেবে ঘোষণা প্রক্রিয়াধীন।

সর্বশেষ - জাতীয়

ব্রেকিং নিউজ :